শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৫০ অপরাহ্ন

৫০০ বিমান কিনবে ভারতের বৃহত্তম বিমান সংস্থা ইন্ডিগো এয়ারলাইন্স

  • আপডেট সময় শনিবার, ৪ মার্চ, ২০২৩

কদিন আগেই জানা গেল, ভারতের বিমান সংস্থা এয়ার ইন্ডিয়া ৫০০ বিমান কিনবে। সেই খবরের রেশ শেষ হতে না হতেই এবার জানা গেল, ভারতের আরেক বিমান সংস্থা ইন্ডিগোও একই পথে হাঁটছে। অর্থাৎ, তারাও বোয়িং ও এয়ারবাস কোম্পানির কাছ থেকে ৫০০টি বিমান কেনার আলোচনা করছে। খবর রয়টার্স

ইন্ডিগো ভারতের বৃহত্তম বিমান সংস্থা। তারা মূলত ইউরোপীয় কোম্পানি এয়ারবাসের অপ্রশস্ত বিমান দিয়ে এত দিন উড়ান পরিচালনা করে এসেছে। মূলত ফ্রান্সের অর্থমন্ত্রী ব্রুনো এল মেয়ার গত মাসে এ খবর ফাঁস করেন। তাঁর ভাষ্যমতে, এয়ারবাসের সঙ্গে ইন্ডিগোর আলোচনা প্রায় শেষের দিকে। তারা শিগগিরই ক্রয়াদেশ দেবে।

তবে ইন্ডিগো এবার প্রশস্ত বিমানও বহরে যুক্ত করতে চায়। তাতে এখন দুই কোম্পানির দুটি মডেলের বিমানের মধ্যে প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে—বোয়িংয়ের ৭৮৭ ড্রিমলাইনার ও এয়ারবাসের এ ৩৩০ নিওর হালানাগাদ মডেল।

প্রশস্ত বিমানের সঙ্গে কিছু অপ্রশস্ত বিমানও কিনবে ইন্ডিগো। সে ক্ষেত্রে তারা বোয়িংয়ের ৭৩৭ ম্যাক্স ও এয়ারবাসের এ ৩২০ নিওর মধ্যে সম্ভাবনা খতিয়ে দেখছে। ইন্ডিগো কতগুলো প্রশস্ত আর কতগুলো অপ্রশস্ত বিমান কিনবে, তা এখনো পরিষ্কারভাবে জানা যায়নি।

ইন্ডিগোর প্রতিনিধি রয়টার্সকে বলেছেন, তাঁরা বিমান উৎপাদনকারীদের সঙ্গে এ নিয়ে ধারাবাহিকভাবে আলোচনা করছেন। আলোচনা এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

এদিকে এয়ারবাস এ নিয়ে রয়টার্সের কাছে মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। তারা বলেছে, ক্রেতাদের সঙ্গে সব সময়ই তাদের আলোচনা হয়। বোয়িং কোম্পানিও এ বিষয়ে স্পিকটি নট।

তবে ইন্ডিগো বাজেট ক্যারিয়ার বা ব্যয় সাশ্রয়ী বিমান সংস্থা হিসেবে ভারতের বাজারে জনপ্রিয়। দেশটির অভ্যন্তরীণ বাজারের ৫৫ শতাংশ শেয়ার তাদের। ফলে যাত্রা ব্যয় সাশ্রয়ী রাখতে তারা এয়ারবাসের অপ্রশস্ত বিমানই বেশি কিনবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ইন্ডিগো আগে থেকেই এয়ারবাসের সবচেয়ে বড় ক্রেতা। এ পর্যন্ত এয়ারবাসের কাছ থেকে তারা ৮৩০টি বিমান কেনার কার্যাদেশ দিয়েছে। যার মধ্যে ৪৮৮টি বিমান এখনো বুঝে পায়নি তারা।

বিশ্বের যেসব দেশে বিমান পরিবহনসেবা দ্রুত সম্প্রসারিত হচ্ছে, ভারত তাদের মধ্যে অন্যতম। কাতার ও টার্কিশ এয়ারলাইনসগুলোর মতো বড় কোম্পানিগুলোর সঙ্গে তারা প্রতিযোগিতায় নামতে চায়। সে জন্য তাদের বহরে বিমান যুক্ত করার প্রয়োজনীয়তা সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমানে ভারতীয় বিমান সংস্থাগুলোর বহরে আছে মাত্র ৭০০ বিমান, যা দিয়ে ওই সব বড় কোম্পানির সঙ্গে প্রতিযোগিতা করা সম্ভব নয় বলেই মনে করেন বিশ্লেষকেরা।

গত মাসে বোয়িং কোম্পানি বলেছিল, তাদের ধারণা, আগামী দুই দশকে ভারতের আরও ২ হাজার ২১০টি উড়োজাহাজ প্রয়োজন হবে। আগামী ২০৪১ সাল পর্যন্ত দেশটির অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচল বছরে ৭ শতাংশ হারে বাড়বে বলেও মনে করে বিশ্বের অন্যতম বড় এ বিমান কোম্পানি।

এদিকে ফেব্রুয়ারি মাসে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, দেশটিতে আগামী ১৫ বছরে দুই হাজারের বেশি উড়োজাহাজ প্রয়োজন হবে।

অ্যাভিয়েশন কনসালট্যান্ট সিএপিএর তথ্য, আগামী এক কিংবা দুই বছরে ভারতে বিমান চলাচল কোম্পানিগুলো দেড় হাজার থেকে দুই হাজার উড়োজাহাজ কেনার আদেশ দেবে।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

Like Us On Facebook

Facebook Pagelike Widget
© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com