শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ১১:৫২ পূর্বাহ্ন

হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ, ২০২৩

বাংলাদেশের প্রথম আন্তজার্তিক মানের পাঁচ তারকা হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল, ঢাকা। ১৯৬৬ সালে যাত্রা শুরু এবং ১৯৮৩ সাল পর্যন্ত চালু ছিল। মাঝে এটি ঢাকা শেরাটন হোটেল ও রূপসী বাংলা হোটেল নামে কার্যক্রম পরিচালনার পর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল নামে ফের চালু হয় ১৯১৮ সালের জুন মাস থেকে। ১৯৮৩ সাল থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত ঢাকা শেরাটন নামে তাদের বানিজ্যিক কার্যক্রম পরিচালনা করে। চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার পর হোটেল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বপ্রাপ্ত বাংলাদেশ সার্ভিসেস লিমিটেড (বি এস এল) নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় রূপসী বাংলা হোটেল নামে বানিজ্যিক কার্যক্রম পরিচালনা করে। ২০১৪ সালে আবার ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেল পুনরায় চুক্তিবদ্ধ হয়।

ইন্টার কন্টিনেন্টাল হোটেল গ্রæপ বিশ্বের প্রায় ১০০ টি দেশে তাদের হোটেল ব্যবসা পরিচালনা করছে। বর্তমানে এই গ্রæপ এর ৬০টি দেশে ১৮০টি হোটেল আছে। হোটেলটি সাজানো হয়েছে সম্পূর্ণ নতুন রূপে। খাবারের মেনুতে আনা হয়েছে পরিবর্তন। স্বাদ বাড়ানোর পাশাপাশি সেটাকে স্বাস্থ্যকর করে তোলার জন্যরয়েছে নানা আয়োজন। উপমহাদেশের খাবারের মধ্যে সুপরিচিত জনপ্রিয় সব ধরনের খাবারই এখানে পরিবেশিত হয়। এখানে ষ্টেক হাউজ ও সিফুড বার আছে। সেই সঙ্গে আন্তর্জাতিকমানের প্রেস্ট্রিও কফি শপ আছে। পৃথিবীর সব ভালো ব্রান্ডের কফিই পাওয়া যায় এখানে। হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল দেশের প্রথাম পাচ তারকা হোটেল। পরবর্তীতে হোটেল সোনারগাঁও হলেও হোটেলটি নিজের অবস্থান ধরে রেখেছে। এর অবস্থান শহরের প্রাণ কেন্দ্রে। আন্তর্জাতিক সম্মেলন থেকে শুরু করে রাষ্ট্রীয় অনেক আতিথিও থাকেন এই হোটেলে।

আগের ঐতিহ্য ধরে রেখেই হোটেল ইন্টাকন্টিনেন্টাল সাড়া ফেলেছে আগের চেয়ে অনেক বেশি। তারকা হোটেলের সর্বাধুনিক সুযোগ সুবিধাসম্পন্ন রুমগুলোর মধ্যে রয়েছে ডিলাক্স, ডিলাক্স টুইন, সুপার ডিলাক্স, লাক্সারি ডিলাক্স, এক্সিকিউটিভ সুইট, কিং সুইট, প্রিমিয়াম সুইট, বাঙ্গালি সুইট প্রভৃতি। মূলত: রুমের আয়তন এবং সুযোগ সুবিধার উপর নির্ভর করে ভাড়া। রুমও স্যুইটগুলোর নূন্যতম সুযোগ-সুবিধার মধ্যে রয়েছে টিভি, ক্যাবল চ্যানেল, ওয়াই ফাই ও শীততাপ নিয়ন্ত্রন সুবিধা প্রভৃতি। হোটেলের অভ্যন্তরীন সুবিধার মধ্যে রয়েছে মিনিবার, বার, লন্ড্রি, রেস্টুরেন্ট, হলরুম, বলরুম, কনফারেন্স রুম, সেন্ট্রাল এসি, ইনডোর গেমস, সুইমিং পুল, পার্লার সেলুন, ব্যায়ামাগার এবং স্টীম বাথরুম সর্ভিস, স্যুভেনির শপ, শপিং কর্ণার, এটিএম বুথ, ফরেন মানি এক্সচেঞ্জ, গিফট শপ, কুরিয়ার, স্কোয়াশ, টেনিস কোর্ট, ২৪ ঘণ্টা রিসেপশন, ইয়ারপুল, চিকিৎসা কেন্দ্র, বানিজ্যিক অফিস, লবিসহ সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা। ২৪ ঘণ্টা ফুড সার্ভিস প্রভৃতি। এছাড়া রয়েছে এয়ারপোর্ট ট্রান্সফারে নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থা।

হোটেলে বোর্ডার তথা অতিথিদের বাইরেও কিছু নন বের্ডার সুবিধা রয়েছে। এসব সুবিধা পেতে হলে নন বোর্ডারদেরকে পূর্ব থেকেই যোগাযোগ করতে হয়।

আধুনিক অভ্যান্তরীন সাজসজ্জা ও অভিজ্ঞ ভিজুয়াল লাইটিং সুবিধা সহ পাবলিক এরিয়া, ব্যাংকুয়েট ও মিটিং রুম। রয়েছে হেলথ ক্লাব। পৃথিবীর সেরা স্পা প্রতিষ্ঠান এটি পরিচালনা করছে। সুইমিং পুল ও সাজানো হয়েছে নতুন করে। প্রকৃতির ছোয়া দেওয়ার জন্য তিন তলায় নেওয়া হয়েছে সুইমিং পুল যেখান থেকে রমনা পার্কের প্রকৃতিক দৃশ্য নজরে আসে সাতারুদের। শীতকালে থাকে গরম পানির ব্যবস্থা, পানি শোধনের জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে আধুনিক প্রযুক্তি।

বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের উপর ভিত্তি করে কারুকাজ সম্বলিত পর্দা দেওয়া হয়েছে।তাইতো দেশি বিদেশিদের বিশেষ পছন্দ হোটেল ইন্টারকন্টেনেন্টাল। সম্পূর্ণ নতুনভাবে এবং নতুন আঙ্গিকে হোটেলটি যাত্রা শুরু করেছে।
হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল

বাংলাদেশের প্রথম আন্তজার্তিক মানের পাঁচ তারকা হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল, ঢাকা। ১৯৬৬ সালে যাত্রা শুরু এবং ১৯৮৩ সাল পর্যন্ত চালু ছিল। মাঝে এটি ঢাকা শেরাটন হোটেল ও রূপসী বাংলা হোটেল নামে কার্যক্রম পরিচালনার পর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল নামে ফের চালু হয় ১৯১৮ সালের জুন মাস থেকে। ১৯৮৩ সাল থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত ঢাকা শেরাটন নামে তাদের বানিজ্যিক কার্যক্রম পরিচালনা করে। চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার পর হোটেল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বপ্রাপ্ত বাংলাদেশ সার্ভিসেস লিমিটেড (বি এস এল) নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় রূপসী বাংলা হোটেল নামে বানিজ্যিক কার্যক্রম পরিচালনা করে। ২০১৪ সালে আবার ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেল পুনরায় চুক্তিবদ্ধ হয়।

ইন্টার কন্টিনেন্টাল হোটেল গ্রæপ বিশ্বের প্রায় ১০০ টি দেশে তাদের হোটেল ব্যবসা পরিচালনা করছে। বর্তমানে এই গ্রæপ এর ৬০টি দেশে ১৮০টি হোটেল আছে। হোটেলটি সাজানো হয়েছে সম্পূর্ণ নতুন রূপে। খাবারের মেনুতে আনা হয়েছে পরিবর্তন। স্বাদ বাড়ানোর পাশাপাশি সেটাকে স্বাস্থ্যকর করে তোলার জন্যরয়েছে নানা আয়োজন। উপমহাদেশের খাবারের মধ্যে সুপরিচিত জনপ্রিয় সব ধরনের খাবারই এখানে পরিবেশিত হয়। এখানে ষ্টেক হাউজ ও সিফুড বার আছে। সেই সঙ্গে আন্তর্জাতিকমানের প্রেস্ট্রিও কফি শপ আছে। পৃথিবীর সব ভালো ব্রান্ডের কফিই পাওয়া যায় এখানে। হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল দেশের প্রথাম পাচ তারকা হোটেল। পরবর্তীতে হোটেল সোনারগাঁও হলেও হোটেলটি নিজের অবস্থান ধরে রেখেছে। এর অবস্থান শহরের প্রাণ কেন্দ্রে। আন্তর্জাতিক সম্মেলন থেকে শুরু করে রাষ্ট্রীয় অনেক আতিথিও থাকেন এই হোটেলে।

আগের ঐতিহ্য ধরে রেখেই হোটেল ইন্টাকন্টিনেন্টাল সাড়া ফেলেছে আগের চেয়ে অনেক বেশি। তারকা হোটেলের সর্বাধুনিক সুযোগ সুবিধাসম্পন্ন রুমগুলোর মধ্যে রয়েছে ডিলাক্স, ডিলাক্স টুইন, সুপার ডিলাক্স, লাক্সারি ডিলাক্স, এক্সিকিউটিভ সুইট, কিং সুইট, প্রিমিয়াম সুইট, বাঙ্গালি সুইট প্রভৃতি। মূলত: রুমের আয়তন এবং সুযোগ সুবিধার উপর নির্ভর করে ভাড়া। রুমও স্যুইটগুলোর নূন্যতম সুযোগ-সুবিধার মধ্যে রয়েছে টিভি, ক্যাবল চ্যানেল, ওয়াই ফাই ও শীততাপ নিয়ন্ত্রন সুবিধা প্রভৃতি। হোটেলের অভ্যন্তরীন সুবিধার মধ্যে রয়েছে মিনিবার, বার, লন্ড্রি, রেস্টুরেন্ট, হলরুম, বলরুম, কনফারেন্স রুম, সেন্ট্রাল এসি, ইনডোর গেমস, সুইমিং পুল, পার্লার সেলুন, ব্যায়ামাগার এবং স্টীম বাথরুম সর্ভিস, স্যুভেনির শপ, শপিং কর্ণার, এটিএম বুথ, ফরেন মানি এক্সচেঞ্জ, গিফট শপ, কুরিয়ার, স্কোয়াশ, টেনিস কোর্ট, ২৪ ঘণ্টা রিসেপশন, ইয়ারপুল, চিকিৎসা কেন্দ্র, বানিজ্যিক অফিস, লবিসহ সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা। ২৪ ঘণ্টা ফুড সার্ভিস প্রভৃতি। এছাড়া রয়েছে এয়ারপোর্ট ট্রান্সফারে নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থা।

হোটেলে বোর্ডার তথা অতিথিদের বাইরেও কিছু নন বের্ডার সুবিধা রয়েছে। এসব সুবিধা পেতে হলে নন বোর্ডারদেরকে পূর্ব থেকেই যোগাযোগ করতে হয়।

আধুনিক অভ্যান্তরীন সাজসজ্জা ও অভিজ্ঞ ভিজুয়াল লাইটিং সুবিধা সহ পাবলিক এরিয়া, ব্যাংকুয়েট ও মিটিং রুম। রয়েছে হেলথ ক্লাব। পৃথিবীর সেরা স্পা প্রতিষ্ঠান এটি পরিচালনা করছে। সুইমিং পুল ও সাজানো হয়েছে নতুন করে। প্রকৃতির ছোয়া দেওয়ার জন্য তিন তলায় নেওয়া হয়েছে সুইমিং পুল যেখান থেকে রমনা পার্কের প্রকৃতিক দৃশ্য নজরে আসে সাতারুদের। শীতকালে থাকে গরম পানির ব্যবস্থা, পানি শোধনের জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে আধুনিক প্রযুক্তি।

বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের উপর ভিত্তি করে কারুকাজ সম্বলিত পর্দা দেওয়া হয়েছে।তাইতো দেশি বিদেশিদের বিশেষ পছন্দ হোটেল ইন্টারকন্টেনেন্টাল। সম্পূর্ণ নতুনভাবে এবং নতুন আঙ্গিকে হোটেলটি যাত্রা শুরু করেছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com