বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ১০:১১ অপরাহ্ন

সাবধান ‘সুন্দরীদের’ ফাঁদ! সর্বস্বান্ত হয়ে দিশেহারা প্রবাসী পরিবার

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০২৪

বরিশালে বসবাসরত প্রবাসী পরিবারকে টার্গেট করে অভিনব পন্থায় স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা লুট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। দিনের যেকোনো সময় বাসাবাড়িতে গিয়ে বিদেশে থাকা স্বজনের বন্ধু, সহকর্মী পরিচয় দিয়ে প্রথমে কিছু সময়ের জন্য ডলার রাখার কথা বলা হয়। সেই ফাঁদে পা দিলেই পরে কৌশলে সবকিছু লুট করে সর্বস্বান্ত করা হয়। আর এমন ঘটনায় বেশিভাগই সুন্দরী নারীদের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যায়।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. আলী আশরাফ ভূঞা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, রোববার রাতে নগরীর কাশিপুর এলাকা থেকে প্রযুক্তির সহায়তায় ফারজানা রেজা নেলী নামে এক নারীকে আটক করা হয়। চালচলনে বোঝার উপায় নেই ওই নারীর প্রতারণার কৌশলচিত্র। ফারজানা রেজা নেলীর বিরুদ্ধে মেট্রোপলিটন পুলিশের বিভিন্ন থানায় দুটি মামলাসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।

এ দিকে এমন ফাঁদে পড়ে বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানার সামনে ধর্ণা দিচ্ছেন মা ও মেয়ে। দুজনেই উচ্চ শিক্ষিত, সরকারি কলেজশিক্ষক। বাসা শহরের বৈদ্যপাড়া এলাকায়। ওই মা ও মেয়ে জানান, সম্প্রতি সুদর্শনা এক নারী নিজেকে তাদের সৌদিতে থাকা স্বজনের পরিচিত দাবি করে বাসায় এসে প্রথমে ভাবজমান। পরে বিপদে পড়েছেন আকুতি করে সেই নারী কিছু বিদেশি টাকা-ডলার একদিনের জন্য তাদের আলমিরাতে রাখার অনুরোধ জানান। প্রথমে রাজি না হলেও পরে অনেক জোরাজুরিতে নিজেদের আলমিরাতে রাখেন ডলার। এ সময় সেই নারী আলমিরার চাবি রাখার স্থান দেখে কৌশলে লুট করে ১০ ভরি স্বর্ণালংকারসহ নগদ অর্থ।

বরিশাল কামারখালী হজরত আলী ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক ফারহানা হক বলেন, আমাদের ঘর থেকে ১০ ভরি স্বর্ণালঙ্কারসহ নগদ টাকা নিয়ে গেছেন৷ সবকিছু হারিয়ে এখন আমরা দিশেহারা।

বরিশালের বাকেরগঞ্জের সৈয়দ আফসার আলী ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক রায়হানা আরা বলেন, যে চক্রটি আমাদের ঘরে চুরি করেছে তার উপযুক্ত শাস্তি চাই। আমরা আমাদের জিনিসপত্র ফেরত চাই।

এমন অভিনব প্রতারণার ফাঁদে পড়েন মেহেদি হাসান, ও মো. মিজান। তারা জানান, আমাদের যা খোয়া গেছে আশা করি সব ফেরত পাবো। পাশাপাশি যারা এসব কাজের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের শাস্তি চাই।

এ বিষয়ে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. আলী আশরাফ ভূঞা বলেন, নানা অপরাধের অভিযোগ আছে আটক ফারজানার বিরুদ্ধে। তদন্তের জন্য তার রিমান্ড চাওয়া হবে। প্রবাসীদের পরিবারের ওপর এমন চক্র সক্রিয় আছে জানতে পেরে ব্যবস্থা নিয়েছি। এ চক্রের সঙ্গে জড়িত বাকিদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে।
 
এদিকে কোনো কথা না বলে উল্টো গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে তর্কে জড়ান অভিযুক্ত ফারজানা ও তার স্বামী ব্যাংকার দাবিদার জামাল আহমেদ।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com