বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৫:১২ পূর্বাহ্ন
Uncategorized

লন্ডন সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য

  • আপডেট সময় রবিবার, ২ মে, ২০২১
ইউরোপের মধ্যে অনেক সুন্দর সুন্দর শহর গুলির মধ্যে অন্যতম একটি শহর হলো লন্ডন। উত্তর পশ্চিম ইউরোপের ইংল্যান্ড এবং ইউনাইটেড কিংডমের  রাজধানী তথা সবচেয়ে জনবহুল শহর হল লন্ডন। শহরটি গ্রেট ব্রিটেন দ্বীপের দক্ষিণাংশে অবস্থিত ইংল্যান্ড এর দক্ষিণ-পূর্ব অংশে টেমস নদীর তীরে অবস্থিত। বিশাল এই মহানগরীতে প্রায় ৮৮ লক্ষ লোক বসবাস করে। এটি ইংল্যান্ড ও ইউনাইটেড কিংডমের বৃহত্তম শহর। ইউনাইটেড কিংডমের ১৩ শতাংশের বেশি লোক লন্ডনে বসবাস করে। সতেরো শ শতক থেকে আজ পর্যন্ত লন্ডন ইউরোপের বৃহত্তম শহর। উনিশ শ শতকে এটি বিশ্বের বৃহত্তম ও সবচেয়ে প্রভাবশালী নগরী ছিল। তো চলুন জেনে নিই লন্ডন সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য (Amazing facts about the country LONDON). 

কয়েক শতাব্দীর পুরোনো লন্ডন শহরটি প্রিতিষ্ঠা করা হয়ে রোমান শাসকদের দ্বারা। রোমানেরা তখন এই শহরটির নাম রাখে লন্ডিনিয়াম। শিল্প, সংকৃতি,পর্যটন এবং পরিবহন ব্যাবস্থার মতো বেশ কয়েকটি দিকে লন্ডন একটি বিশ্ব প্রসিদ্ধ  সিটি।  তাই অনেক সময় লন্ডনকে পৃথিবীর কালচারাল ক্যাপিটাল বলা হয়ে থাকে। শুধু কালচারের দিক দিয়ে যে লণ্ডন বিশ্ব প্রসিদ্ধ তা যে – টেমস নদীর তীরে অবস্থিত এই প্রাচীন শহরটি এক বৃহত্তম অর্থনীতি ব্যবস্থা সম্পন্ন শহর। লন্ডন পৃথিবীর সবচেয়ে ব্যায়বহুল শহর গুলির মধ্যে একটি এবং বিশ্বের কিছু ধোনি মানুষের বাসস্থান এই লন্ডন শহরটিতে  রয়েছে।

পৃথিবীর বিভিন্ন প্রসিদ্ধ শহরগুলির মধ্যে লন্ডনে সর্বাধিক বেশি বিদেশি পর্যটক আসে। ১৫৭২ বর্গ কিলোমিটার জায়গা জুড়ে থাকা গ্রেটার লন্ডন শহরটিতে দেখা যায়  বিশ্ব প্রসিদ্ধ  কিছু পরিবহন ব্যবস্থা।  বিদেশী পর্যটক তথা লন্ডন এর স্থানীয় মানুষদের যাতায়াতের সুবিধার জন্য ইউরো ষ্টার ট্রেন, ডাবল ডেকের বাস আন্ডারগ্রউন্ড  মেট্রো ট্রেন পরিষেবা এবং আধুনিক  বিমান পরিষেবা আছে। লন্ডন শহরের যাতায়াটের এক গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম লন্ডন আন্ডারগ্রউন্ড  রেল পরিষেবা।  এই রেল পরিষেবা পৃথিবীর প্রাচীনতম ভূগর্বস্থ রেল পথ।  যার পরিষেবা চালু হয়ে ১৮৬৩ সালে এবং এই রেল পথটিকে THE  TUBE নামেও ডাকা হয়ে থাকে। প্যাসেঞ্জের ট্রাফিক অনুযায়ী লন্ডন এর বিমান বন্দরগুলি পৃথিবীর ব্যাস্ততম বিমান পরিষেবা।
আপনি এটা জেনে অবাক হবেন যে গ্রেটার লন্ডন এলাকার প্রায় ৪০ শতাংশের মতো জায়গাতে সবুজ গাছপালা ভোরে রয়েছে। তাই এই গ্লোবাল ওয়ার্মিং নিয়ন্ত্রণে অনেকটা সাহায্য করে।
ইউরোপ মহাদেশে লণ্ডন একটি প্রসিদ্ধ পড়াশুনার জায়গা হিসেবে পরিচিত।  এই শহরে পৃথিবীর কিছু নামি দামি ইউনিভার্সিটি আছে যেমন অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি, ক্যামব্রিজ ইউনিভার্সিটি যেখানে পড়াশুনা করতে দেশ বিদেশ থেকে বহু ছাত্র ছাত্রীরা এখানে আসেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com