শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ১২:৫৫ অপরাহ্ন

রেমিট্যান্স পাঠানোয় শীর্ষে সৌদি আরবের প্রবাসীরা

  • আপডেট সময় বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

সদ্যবিদায়ী আগস্ট মাসে দেশে এসেছে ১৫৯ কোটি ৯৪ লাখ মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স এসেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব থেকে।

মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

এতে বলা হয়, ২০২৩-২৪ অর্থবছরের আগস্টে সৌদি আরবের প্রবাসীরা দেশে সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। দেশটি থেকে রেমিট্যান্স এসেছে ২৯ কোটি ১৩ লাখ ৬০ হাজার মার্কিন ডলার।
 
এছাড়া শীর্ষ ১০ দেশের তালিকায় আরও রয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত, ‍যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কুয়েত, ইতালি, মালয়েশিয়া, কাতার, ওমান ও মরিশাস। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৩ কোটি ৮৫ লাখ ৯০ হাজার ডলার রেমিট্যান্স এসেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে।
 
আর ‍যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কুয়েত, ইতালি, মালয়েশিয়া, কাতার, ওমান ও মরিশাস থেকে আগস্ট মাসে রেমিট্যান্স এসেছে যথাক্রমে ২১ কোটি ৭৪ লাখ ২০ হাজার, ১৭ কোটি ২ লাখ ৭০ হাজার, ১১ কোটি ৬২ লাখ ৫০ হাজার, ১১ কোটি ১২ লাখ ৬০ হাজার, ৮ কোটি ৩২ লাখ ৬০ হাজার, ৬ কোটি ৮৩ লাখ, ৬ কোটি ৪৭ লাখ ৫০ হাজার ও ৪ কোটি ৪৭ লাখ মার্কিন ডলার।
 
আর ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জুলাইতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রবাসীরা দেশে সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন। দেশটি থেকে রেমিট্যান্স এসেছিল ৩২ কোটি ৯৯ লাখ ৮০ হাজার মার্কিন ডলার। এছাড়া শীর্ষ ১০ দেশের তালিকায় আরও ছিল সৌদি আরব, ‍যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, ওমান, মালয়েশিয়া, কুয়েত, ইতালি, কাতার ও বাহরাইন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩০ কোটি ৭৫ লাখ ডলার রেমিট্যান্স এসেছিল সৌদি আরব থেকে।
 
এদিকে সদ্যবিদায়ী আগস্ট মাসে দেশে সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন ঢাকা বিভাগের প্রবাসীরা। এছাড়া জুলাইয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এসেছে চট্টগ্রাম বিভাগে। চট্টগ্রামে প্রবাসীরা রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন ৪২ কেটি ৬৯ লাখ ডলার। আর প্রবাসীরা সিলেট বিভাগে ১৮ কোটি ৫৯ লাখ ডলার, খুলনা বিভাগে ৬ কোটি ২১ লাখ ডলার, রাজশাহী বিভাগে ৪ কোটি ৬৬ লাখ ডলার, বরিশাল বিভাগে ৩ কোটি ৬৪ লাখ ডলার, ময়মনসিংহ বিভাগে ২ কোটি ৭৭ লাখ ডলার ও রংপুর বিভাগে ১ কোটি ৭৬ লাখ ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন।
 
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য বলছে, আগস্ট মাসে দেশে আসা ১৫৯ কোটি ৯৪ লাখ মার্কিন ডলার রেমিট্যান্সের মধ্যে রাষ্ট্র মালিকানাধীন ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ১৮ কোটি ৩১ লাখ ৯০ হাজার ডলার। আর বিশেষায়িত ব্যাংকের মাধ্যমে ৩ কোটি ৩৯ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার, বেসরকারি ব্যাংকের মাধ্যমে ১৩৭ কোটি ৬০ লাখ ২০ হাজার ডলার ও বিদেশি খাতের ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৬৩ লাখ ১০ হাজার ডলার রেমিট্যান্স।
 
বাংলাদেশ ব্যাংক আরও জানায়, আগস্ট মাসের ২৬ থেকে ৩১ তারিখ পর্যন্ত দেশে এসেছে ২৭ কোটি ৬২ লাখ ৯০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স। আগস্ট মাসের ১৯ থেকে ২৫ তারিখ পর্যন্ত দেশে এসেছিল ২৮ কোটি ২৫ লাখ ৭০ হাজার ডলার।
 
আর ১২ থেকে ১৮ আগস্টের মধ্যে দেশে রেমিট্যান্স এসেছে ৩৪ কোটি ৫৬ লাখ ৪০ হাজার মার্কিন ডলার। ৫ থেকে ১১ আগস্টের মধ্যে ৪৪ কোটি ৮১ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। এছাড়া ১ থেকে ৪ আগস্ট দেশে এসেছে ২৪ কোটি ৬৮ লাখ ২০ হাজার ডলার রেমিট্যান্স।
 
বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, জুলাই মাসে ১৯৭ কোটি ৩১ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এরমধ্যে রাষ্ট্রমালিকানাধীন ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ২৪ কোটি ৪৫ লাখ ১০ হাজার ডলার। আর বিশেষায়িত ব্যাংকের মাধ্যমে ৫ কোটি ৭০ লাখ ৩০ হাজার ডলার, বেসরকারি ব্যাংকের মাধ্যমে ১৬৬ কোটি ৫২ লাখ ৫০ হাজার ডলার ও বিদেশি খাতের ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৬৩ লাখ ৬০ হাজার ডলার রেমিট্যান্স।
 
জুলাইতে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন ঢাকা বিভাগের প্রবাসীরা। ঢাকায় রেমিট্যান্স এসেছে ৯৩ কোটি ৬৭ লাখ ডলার। এছাড়া জুলাইয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এসেছে চট্টগ্রাম বিভাগে। চট্টগ্রামে প্রবাসীরা রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন ৫৮ কেটি ৬ লাখ ডলার। আর প্রবাসীরা সিলেট বিভাগে ২১ কোটি ৬৭ লাখ ডলার, খুলনা বিভাগে ৭ কোটি ৩৬ লাখ ডলার, রাজশাহী বিভাগে ৫ কোটি ৯৩ লাখ ডলার, বরিশাল বিভাগে ৪ কোটি ৭৭ লাখ ডলার, ময়মনসিংহ বিভাগে ৩ কোটি ৫০ লাখ ডলার ও রংপুর বিভাগে ২ কোটি ৩৬ লাখ ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন।
 
এদিকে সদ্যবিদায়ী ২০২২-২৩ অর্থবছরে দেশে রেমিট্যান্স এসেছিল ২ হাজার ১৬১ কোটি ৬ লাখ ৬০ হাজার মার্কিন ডলার। আর ২০২১-২২ অর্থবছরে দেশে এসেছিল ২ হাজার ১০৩ কোটি ১৬ লাখ ৮০ হাজার ডলার রেমিট্যান্স, যা সদ্যবিদায়ী ২০২২-২৩ অর্থবছরের তুলনায় ৫৭ কোটি ৮৯ লাখ ৮০ হাজার ডলার কম।
 
এছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ তথ্যে জানা যায়, ২০২০-২১ অর্থবছরে ২ হাজার ৪৭৭ কোটি ৭৭ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা। ২০১৯-২০ অর্থবছরে দেশে রেমিট্যান্স এসেছিল ১ হাজার ৮২০ কোটি ৫০ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে দেশে ১ হাজার ৬৪১ কোটি ৯৬ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা।
 
কেন্দ্রীয় ব্যাংক আরও জানায়, সদ্যবিদায়ী ২০২২-২৩ অর্থবছরে রাষ্ট্র মালিকানাধীন ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৩৩৯ কোটি ৯১ লাখ ৯০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স। আর বিশেষায়িত ব্যাংকের মাধ্যমে ৫২ কোটি ২২ লাখ ৪০ হাজার ডলার, বেসরকারি ব্যাংকের মাধ্যমে ১ হাজার ৭৬১ কোটি ২০ লাখ ৫০ হাজার ডলার এবং বিদেশি খাতের ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৭ কোটি ৭১ লাখ ৮০ হাজার ডলার রেমিট্যান্স।
 
সদ্যবিদায়ী অর্থবছরের জুলাইতে ২০৯ কোটি ৬৩ লাখ ২০ হাজার, আগস্টে ২০৩ কোটি ৬৯ লাখ ৩০ হাজার, সেপ্টেম্বরে ১৫৩ কোটি ৯৬ লাখ, অক্টোবরে ১৫২ কোটি ৫৫ লাখ ৪০ হাজার, নভেম্বরে ১৫৯ কোটি ৫১ লাখ ৭০ হাজার, ডিসেম্বরে ১৬৯ কোটি ৯৭ লাখ, জানুয়ারিতে ১৯৫ কোটি ৮৮ লাখ ৭০ হাজার, ফেব্রুয়ারিতে ১৫৬ কোটি ৪ লাখ ৮০ হাজার, মার্চে ২০২ কোটি ২৪ লাখ ৭০ হাজার, এপ্রিলে ১৬৮ কোটি ৪৯ লাখ ১০ হাজার, মে মাসে ১৬৯ কোটি ১৬ লাখ ৩০ হাজার ও জুন মাসে এসেছিল ২১৯ কোটি ৯০ লাখ ১০ হাজার ডলার রেমিট্যান্স।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com