শুক্রবার, ২৬ জুলাই ২০২৪, ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন

মুসলিম পর্যটকদের আকর্ষণ বাড়াতে চায় থাইল্যান্ড, হালাল টুরিজমে জোর

  • আপডেট সময় বুধবার, ১০ জুলাই, ২০২৪

থাইল্যান্ডের সরকার দেশটিকে এ অঞ্চলে ‘হালাল টুরিজম’ এর কেন্দ্রে পরিণত করার জন্য নিজ কৌশল বিকাশ অব্যাহত রাখবে। দেশটির একজন মুখপাত্র চাই ওয়াচারোঙ্কের মতে, থাই প্রধানমন্ত্রী স্রেথা থাভিসিন দেশটিকে মুসলিম-বান্ধব গন্তব্য হিসেবে প্রচার করার জন্য সমস্ত পর্যটন-সম্পর্কিত সংস্থাসমূহকে নির্দেশ দিয়েছেন।

সোমবার মিস্টার চাই’র বিবৃতিটি এমন এক সময়ে এসেছে, যখন ক্রিসেন্ট রেটিং এন্ড মাস্টারকার্ড প্রকাশিত গ্লোবাল মুসলিম ট্রাভেল ইনডেক্সে নন-ওআইসি (অর্গানাইজেশন অফ ইসলামিক কো-অপারেশন) দেশগুলোর মধ্যে থাইল্যান্ড পঞ্চম স্থান লাভ করেছে। মুসলিম ভ্রমণকারীদের জন্য প্রদত্ত সুবিধাসমূহের উপর ভিত্তি করে এই র‍্যাংকিং করা হয়। যেমনঃ হালাল খাবারের বিকল্প, ভ্রমণের পরিবেশ এবং প্রার্থনার স্থানে প্রবেশের সহজলভ্যতা।

ব্যাংকক পোস্টের প্রতিবেদনে এসব তথ্য দিয়ে বলা হয়ঃ সামগ্রিকভাবে, থাইল্যান্ড ১৪৫ টি দেশের মধ্যে ৩২ তম স্থানে রয়েছে। ইন্দোনেশিয়া এবং মালয়েশিয়া শীর্ষস্থানে রয়েছে।

উল্লেখ্য, বিশ্বে হালাল টুরিজম শিল্প দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। চলতি বছর কমপক্ষে ১৬ কোটি ৮০ লাখ মুসলিম বিশ্ব ভ্রমণ করবেন বলে আশা করা হচ্ছে৷ মিস্টার চাই’র মতে, প্রাক-মহামারী স্তরের তুলনায় যা কিনা ১৫% বৃদ্ধি পেয়েছে।

তিনি বলছিলেন, “থাইল্যান্ড মুসলিম পর্যটকদের নিকট আকর্ষণীয়। কারণ এখানে বহুসাংস্কৃতিক পরিবেশ এবং মুসলিম-বান্ধব সুযোগ-সুবিধা সহ হালাল খাবারের বিকল্প নির্বাচনের সুযোগ রয়েছে”

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com