1. b_f_haque70@yahoo.com : admin2021 :
  2. editor@cholojaai.net : cholo jaai : cholo jaai
মালয়েশিয়া
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:০১ পূর্বাহ্ন

মালয়েশিয়া

চলযাই ডেস্ক :
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

মালয়েশিয়া তেরটি রাজ্য এবং তিনটি ঐক্যবদ্ধ প্রদেশ নিয়ে গঠিত দক্ষিনপূর্ব এশিয়ার একটি দেশ। নানা বর্ণ, ধর্ম আর সংস্কৃতির মানুষের দেশ মালয়েশিয়া। মিনি এশিয়াও বলেন অনেকে। দক্ষিণ চীন সাগর দ্বারা দেশটি দুই ভাগে বিভক্ত, মালয়েশিয়া উপদ্বীপ এবং পূর্ব মালয়েশিয়া। মালয়েশিয়ার স্থল সীমান্তে রয়েছে থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া এবং ব্রুনাই; এর সমুদ্র সীমান্ত রয়েছে সিঙ্গাপুর, ভিয়েতনাম ও ফিলিপাইন এর সাথে।

এশিয়ার খাদ্য স্বর্গ হিসেবে পরিচিত দেশটি। নানা বর্ণ, ধর্ম আর সংস্কৃতির মানুষের অবস্থানের ফলে এখানকার খাবারও বেশ বৈচিত্রময়। মালয়, চাইনীজ এবং ভারতীয় নানা ধরনের খাবার বিভিন্ন রোস্তোরাঁ এবং পথের পাশের স্টলে খুব কম দামে পাওয়া যায়। এছাড়া রয়েছে মধ্যপ্রাচ্য এবং থাইল্যান্ডের খাবার। নানা সংস্কৃতির মানুষের নানা উৎসবের মাধ্যমে মালয়েশিয়ার সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট্যটি ফুটে ওঠে।

১। অষ্টাদশ শতাব্দীর শেষ ভাগ এবং ঊনবিংশ শতাব্দীতে ব্রিটিশরা বর্তমান মালয়েশিয়া অঞ্চলে উপনিবেশ এবং আশ্রিত রাজ্য প্রতিষ্ঠা করে। একে ব্রিটিশ মালয় বলা হতো। ১৯৪২ সাল থেকে ১৯৪৫ সাল পর্যন্ত জাপান ধীরে ধীরে মালয়েশিয়া দখল করতে থাকে। ১৯৪৮ সালে মালয় উপদ্বীপে অবস্থিত ব্রিটিশ শাসিত অঞ্চলসমূহের সমন্বয়ে মালয় ফেডারেশন গঠিত হয়, যা ১৯৫৭ সালে স্বাধীনতা লাভ করে। সিঙ্গাপুরের ব্রিটিশ উপনিবেশ এবং পূর্ব মালয়েশিয়ান রাজ্য ১৯৬৩ সালে ফেডারেশনে যুক্ত হয়, আর তখনই মালয়েশিয়া স্বতন্ত্র রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়।

২। ডাঃ মাহাথির মোহাম্মদ (জন্ম জুলাই ১০, ১৯২৫) মালয়েশিয়ার বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও আধুনিক মালয়েশিয়ার স্থপতি। তিনি ১৯৮১ সালে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তার নেতৃত্বে ক্ষমতাসীন দল পর পর পাঁচবার সংসদ নির্বাচনে জয়ী হয়ে সরকার গঠন করে। তিনি এশিয়ার সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে গণতান্ত্রিক ভাবে নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।

২০০৩ সালের ৩০শে অক্টোবর তিনি স্বেচ্ছায় প্রধানমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দেন। অবসর গ্রহণের দীর্ঘ পনের বছর পর ৯২ বছর বয়েসে প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের ব্যাপক দুর্নীতি সংশ্লিষ্টতার কারণে মাহাথির মোহাম্মদ আবারও আসেন রাজনীতিতে। ২০১৮ সালের ৯ মে অনুষ্ঠেয় সাধারণ নির্বাচনে জয়ের পরদিন ১০ মে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন তিনি।

৩। ৩ লাখ ৩০ হাজার ৮০৩ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই দেশটিতে প্রায় ৩ কোটি ২৭ লাখ মানুষের বসবাস। আয়তনের দিক দিয়ে এটি বিশ্বের ৬৬ তম বৃহত্তম দেশ।

৪। মালয় ভাষা মালয়েশিয়ার সরকারি ভাষা। এখানকার প্রায় অর্ধেক সংখ্যক লোক মালয় ভাষাতে কথা বলে। তবে মালয়েশিয়াতে আরও প্রায় ১৩০টি ভাষা প্রচলিত।

৫। দাপ্তরিকভাবে মালয়েশিয়া একটি সেক্যুলার রাষ্ট্র হলেও ইসলাম এর আনুষ্ঠানিক ধর্ম। মালয়েশিয়ার মোট জনসংখ্যার প্রায় ৬৩% ইসলাম ধর্মাবলম্বী। পাশাপাশি ১৯.৮% লোক বৌদ্ধ, ৯.২% লোক খ্রিষ্টান, ৬.৩% লোক হিন্দু এবং বাকিরা অন্যান্য ধর্ম পালন করে থাকে। সকল ধর্মের মানুষ নিজ নিজ ধর্মীয় আচার-আচরন পালন করার স্বাধীনতা ভোগ করতে পারেন এখানে।

৬। দেশটির রাজধানী শহর কুয়ালালামপুর এবং পুত্রজায়া হল ফেডারেল সরকারের রাজধানী।

কুয়ালালামপুর মালয়েশিয়ার সাংস্কৃতিক, আর্থিক ও অর্থনৈতিক কেন্দ্র। এটি মালয়েশিয়ার সংসদ এবং মালয়েশিয়ার কিং এর ইস্তানা নেগারার সরকারী আবাসস্থল।

৭। সারাবছর ধরেই উষ্ণ এবং আর্দ্র আবহাওয়া বিরাজ করে। আবহাওয়ার বড় ধরনের পরিবর্তন বা প্রাকৃতিক দূর্যোগ খুব একটা হয় না। দিনে তাপমাত্রা থাকে ৩০০ সে. এর মত আর রাতে ২২০ সে. এর মত। হালকা এবং সূতি আটপৌরে পোশাকই সুবিধাজনক এখানে।

৮। দেশটিতে বড় ধরনের অপরাধ সংঘটনের হার বেশ কম।

৯। মনসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিবেচনায় এ অঞ্চলের একটি গুরুত্বপূর্ণ দেশ এখন মালয়েশিয়া। যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ার মত দেশের বিভিন্ন নামজাদা বিশ্ববিদ্যালয় এখানে তাদের শাখা খুলেছে। আর যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, জার্মানী, অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মালয়েশীয় প্রতিষ্ঠানের সাথে একযোগে কোর্স পরিচালনা করছে।

১০। ইংরেজী বহুল প্রচলিত হওয়ায় বিদেশী শিক্ষার্থীদের বিশেষ অসুবিধা হয় না এখানে। জীবনযাপনের ব্যয় তুলনামূলক কম, বছরে ৩,৭৫০ ডলারের মত। ১০০ টির বেশি দেশের ৫০ হাজারের মত বিদেশী শিক্ষার্থী এখন মালয়েশিয়ায় পড়াশোনা করছে।

১১। বোর্নিও দ্বীপটি মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া এবং ব্রুনাই এই তিনটি দেশ ভাগ করে নিয়েছে। এটি গ্রীনল্যান্ড এবং নিউ গিনির পরে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম দ্বীপ।

১২। মালয়েশিয়াতে আয়তনের দিক দিয়ে বিশ্বের সবচাইতে বড় গুহা অবস্থিত। এই গুহাটির নাম হচ্ছে সারাওয়াক। এটি গানুং মুলু ন্যাশনাল পার্ক এ অবস্থিত। এটি এতটাই বড় যে এখানে বইং ৭৪৭ বিমান খুব সহজেই ঢুকে যাবে।

১৩। জর্জ টাউন এ অবস্থিত পেনানং ফ্রি স্কুল, পেনাং দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার প্রথম এবং প্রাচীনতম ইংরেজি মাধ্যম স্কুল।

১৪। পেনাং ব্রিজ মালয়েশিয়া এবং দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার সবচেয়ে দীর্ঘ সেতু। এই ব্রিজের পুরো দৈর্ঘ্য প্রায় ১৫ মাইল।

১৫। মালয়েশিয়াতেই পৃথিবীর সবচেয়ে পুরাতন রাবার গাছ অবস্থিত। এই গাছটি ১৮৭৭ সালে রোপন করা হয়েছিল।

১৬। কুয়ালালামপুরে অবস্থিত পেট্রোনাস টাওয়ার্স ২০০৪ সাল পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবন ছিল। এই ভবন দুটি এখনও বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু টুইন বিল্ডিং।

১৭। মালয়েশিয়াতে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফুল রাফফ্লেসিয়া আর্নল্ডি পাওয়া যায়। এটি একটি দুর্গন্ধযুক্ত ফুল এবং এর ওজন হয় প্রায় ১১ কেজি পর্যন্ত।

১৮। পেরাক ম্যান বিশ্বের প্রাচীনতম (প্রায় ১১,০০০ বছর) এবং মূল ভূখণ্ড মালয়েশিয়ায় পাওয়া সম্পূর্ণ মানব কঙ্কাল।

১৯। মালয়েশিয়ায় “মালয়েশিয়ার ট্যাপিস ব্লেন্ড 44 ডিগ্রি” নামে বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল এবং শ্রেষ্ঠ মানের অশোধিত তেল উৎপাদিত হয়।

২০। মালয়েশিয়ার মুদ্রার নাম হচ্ছে মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত। ১ মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত সমান প্রায় বাংলাদেশী ২০ টাকা।

২১। দেশটির মোট জিডীপি প্রায় ৩১৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং মাথাপিছু আয় প্রায় ১০ হাজার মার্কিন ডলার।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com