মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৯:২৮ পূর্বাহ্ন

মালদ্বীপ ভ্রমণে যা করা নিষিদ্ধ

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৯ জানুয়ারি, ২০২৪

মালদ্বীপের সৌন্দর্যে সবাই মুগ্ধ। আর এ কারণে তারকা থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ সবাই মালদ্বীপ ভ্রমণে ভিড় করেন। বর্তমানে মালদ্বীপ সবারই স্বপ্নের গন্তব্য হয়ে উঠেছে।

সারা বিশ্বের পর্যটকরা এখানে হানিমুন, সৈকতে ছুটির জন্য বা শুধু বিশ্রাম নিতে আসেন। সারা বছরই এ দেশে মানুষের ভিড় লেগেই থাকে।

মালদ্বীপ ভ্রমণের সেরা সময় হলো জুলাই থেকে আগস্ট মাস। বিলাসবহুল ও সুন্দর ভিলা, সৈকত, সমুদ্রের তীরে সারিবদ্ধ লম্বা লম্বা গাছ স্থানটিকে আরও বিশেষ আকর্ষণীয় করে তুলেছে।

তবে অত্যন্ত সুন্দর এই স্থানে গিয়েও কিন্তু মানতে হবে কিছু নিয়ম-কানুন। না হলে আপনি বিপদে পড়তে পারে। তাই মালদ্বীপে যাওয়ার কথা পরিকল্পনা করলে প্রথমেই জেনে নিন সেখানে ঘোরাঘুরির সময় কোন কাজগুলো করলে বিপদে পড়বেন-

রাস্তায় বিব্রতকর কাজ করবেন না

মালদ্বীপের রাস্তায় এমন কাজ করা নিষেধ, যা মানুষকে বিব্রত করবে। এমনকি রাস্তায় হাঁটার সময় গালে চুম্বন করাকেও সেখানে অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হয়। এমনটি করতে গিয়ে ধরা পড়লে আপনার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থাও নেওয়া যেতে পারে।

অ্যালকোহল পান করা নিষিদ্ধ

মুসলিম দেশ হওয়ায় মালদ্বীপে মদ খাওয়া নিষিদ্ধ। তাই এই বিষয়টি এড়িয়ে যেতে হবে। তবে আপনি যদি কোনো দ্বীপে হোটেল বা রিসোর্ট বুক করেন, তাহলে সেখানে এই নিয়ম প্রযোজ্য নয়।

বিকিনি শুধু রিসর্টের মধ্যেই সীমাবদ্ধ

মুসলিম দেশ হওয়ায় মালদ্বীপ গিয়ে জনসমক্ষে বিকিনি বা অতিরিক্ত খোলামেলা পোশাক পরা এড়িয়ে যাবেন। তবে মালদ্বীপের বেশ কিছু দ্বীপ রিসর্টে আপনি খোলামেলা পোশাক পরার সুযোগ পাবেন।

সৈকতে জুতা পরা নিষেধ

মালদ্বীপের সমুদ্রসৈকতে জুতা খুলে খালি পায়ে হাঁটতেই বেশিরভাগ মানুষ পছন্দ করেন। এটি অনুসরণ করেন স্থানীয়রাও। তাই জায়গাটি উপভোগ করতে বালুকাময় সৈকতের পাড়ে খালি পায়ে হাঁটাই ভালো।

সমুদ্রের পাশে আবর্জনা ফেলবেন না

বাস্তুতন্ত্রের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ সামুদ্রিক জীবন ও উদ্ভিদ। তবে বৈশ্বিক উষ্ণায়নের সমস্যা বাড়ায় ধীরে ধরে সামুদ্রিক বিশ্বের ভারসাম্যও নষ্ট হয়ে গেছে।

শুধু মালদ্বীপ নয়, যে কোনো দেশেই বেড়াতে যান না কেন সেখানকার সমুদ্র ও তার পার্শ্ববর্তী স্থান দূষিত করবেন না। ডাস্টবিনে আবর্জনা ফেলুন।

কালো কোরাল বা কচ্ছপ ও এর খোলস বেচাকেনা নিষিদ্ধ

মালদ্বীপে কালো কোরাল বা কচ্ছপের খোলস বেচাকেনা নিষিদ্ধ। এই কাজে ধরা পড়লে গুরুতর পরিণতি হতে পারে এমনকি কঠোর শাস্তিও ভোগ করতে হতে পারে। প্রকৃতপক্ষে ১৯৯৫ সাল থেকে মালদ্বীপে সামুদ্রিক কচ্ছপ ধরা, হত্যা ও কচ্ছপের পণ্য বিক্রি নিষিদ্ধ।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com