1. b_f_haque70@yahoo.com : admin2021 :
  2. editor@cholojaai.net : cholo jaai : cholo jaai
পেদা টিং টিং
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৩২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার মিডিয়া সাম্রাজ্য গড়ছিল আলিবাবা, এখন বিক্রি করে দিচ্ছে শেয়ার কাল লাখ লাখ অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বন্ধ হয়ে যাবে ভারত-বাংলাদেশ সমুদ্রসীমা বিতর্ক, মহীসোপান নিয়ে বিতর্কের কারণ কী? অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডে মুক্তি পাচ্ছে বহুল প্রতীক্ষিত পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার ‘মিশন এক্সট্রিম’ সম্ভাবনা ও সুযোগে পরিপূর্ণ বাংলাদেশে বিনিয়োগ করুন বাংলাদেশকে স্বাগত জানিয়ে নিউ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক প্রেসিডেন্টের বার্তা বিমানবন্দরে বসলো করোনা পরীক্ষার পিসিআর ল্যাব ‘মিস আর্থ বাংলাদেশ’র মুকুট জিতলেন নাইমা যেভাবে ১ লাখ কোটি টাকার প্রতিষ্ঠান গড়লেন মেলানিয়া-ক্লিফ দম্পতি

পেদা টিং টিং

চলযাই ডেস্ক :
  • আপডেট সময় সোমবার, ৩০ আগস্ট, ২০২১

গত ডিসেম্বরে আবার যাত্রা কাপ্তাই অভিমুখে। কমলাপুর থেকে চট্টগ্রাম ট্রেনে, তারপর মাইক্রোবাসে সরাসরি কাপ্তাইয়ের বনফুল নামের বন বিভাগের রেস্টহাউসে। ওই রেস্টহাউসের বারান্দায় দাঁড়িয়ে কর্ণফুলী নদীর ওপরে কম্পমান জলের আরশিতে সূর্যের আলোর প্রতিফলন দেখে আমার মনে হলো, এমন সূর্যের আলো, মরি যদি সেও ভালো, সে মরণ স্বর্গসমান। ওই ওপারে পাহাড়। জঙ্গলে ঢাকা। বাংলাদেশে এত সুন্দর জায়গাও আছে। কাপ্তাই জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভেতরে ঢুকেছি, তবে জলের ঘূর্ণি দেখতে না পেয়ে খানিকটা হতাশই হয়েছি। কিন্তু নয়ন জুড়িয়ে গেছে। আমরাও বলাবলি করছিলাম পাহাড়ের বুক চিরে লেকের পাশ দিয়ে একটা নতুন রাস্তা হয়েছে, সে রাস্তা দিয়ে যে না গেছে, তাকে বলে বোঝানো মুশকিল, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য কী সর্বগ্রাসী হতে পারে!

বাংলাদেশের একটি স্থানের নাম রাঙামাটি। রাঙামাটির সরোবরটা, পাহাড়িদের অশ্রæ মিশে আছে তাতে, তবুও জায়গাটা এত সুন্দর যে তার প্রশস্তি পাওয়ার লোভ সংবরণ করা মুশকিল।

রাঙামাটির লেক বেয়ে শুভলং পর্যন্ত একবার যাবেন। দুপশে নির্জন পাহাড়, সবুজ অরণ্য, তার ভেতর দিয়ে বয়ে চলেছে নৌকা। একটা সময় মনে হবে, আমি পৃথিবীর বাইরে কোথাও- স্বর্গের কাছাকাছি। রাঙামাটি পর্যটন হোটেলের পেছনেই সেই বিখ্যাত ঝুলন্ত সাঁকোটি, সেখানে একটা নৌকা ভাড়া করে শুভলং যাওয়ার পথেই পেদা টিং টিং রেস্তোরাঁয় আপনি খাবারের অর্ডার দিয়ে যাবেন। ফেরার পথে খাবেন পাহাড়ি পদের তরকারি, কলাপাতার মধ্যে, বাঁশের চোঙের মধ্যে রান্না করা মুরগি কিংবা মাছ। আহ্! যে একবার খেয়েছে, সে বারবার যাবে পেদা টিং টিং এ।

দুপুর বারোটায় আমাদের বাস। সকাল সাড়ে দশটায় সময় মনো হলো, পেদা টিং টিং রেস্তোরাঁর খাবার না খেয়ে ঢাকায় ফেরা অসম্ভব। এখন ইঞ্জিন নৌকা নিয়ে গেলে নৌকা ভাড়া ৫০০ টাকা, কিন্তু যাতায়াতের সময় লাগবে দেড় ঘন্টা। স্পিডবোট ভাড়া করি। যেতে লাগবে পাঁচ মিনিট, ফিরতে পাঁচ মিনিট। ভাড়া ১২০০ টাকা। আমরা ১২০০ টাকা স্পিডবোট ভাড়া দিয়ে ৫০০ টাকার খাবার খেয়ে ফিরলাম।

সরোবরের মধ্যেখানে দ্বীপের মতো জায়গাটায় ওই আদিবাসী রান্নার রেস্তোরাঁর খাবারের এমনই জাদুকরি টান!

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com