মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ১১:২০ পূর্বাহ্ন

নীলাচল নীলাম্বরি রিসোর্ট

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

সবুজ পাহাড়, মেঘ আর আকাশের নীলের মিলনমেলার অনন্য রূপ দেখা যায় বান্দরবানে। আর সেই জায়গার অন্যতম দর্শনীয় স্থান নীলাচল পর্যটন কমপ্লেক্স। আর তার ঠিক পাশেই আপনাকে মেঘের রাজ্যে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত নীলাচল নীলাম্বরি রিসোর্ট।

নীলাচলকে অনেকে বাংলাদেশের দার্জিলিং বলে থাকেন। এখান থেকে পুরো বান্দরবান শহর এক নজরে দেখা যায়। এখান থেকে সূর্যাস্তের দৃশ্য দেখা এক স্বর্গীয় অনুভূতি। আর মেঘমালার বিস্তর রাজ্য তো আছেই। চাইলে বান্দরবান ভ্রমণের পুরোটা সময়ের জন্য আপনি বেছে নিতে পারেন এই রিসোর্টকে। এখানকার অবারিত প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আপনাকে মুগ্ধ করবে। ফুলের বাগান, দৃষ্টিনন্দন অবকাঠামোঘেরা এ জায়গা হতে পারে আপনার অবকাশ যাপনের অন্যতম অপশন।

সুবিশাল এলাকা নিয়ে পর্যটকদের জন্য নীলাম্বরির আয়োজনে রয়েছে চমৎকার সব কটেজ। নীল রঙা ছাদের প্রতিটি কটেজেই রয়েছে কাপল বেডের দুইটি করে রুম। আপনাকে আশ্চর্য করবে রুমগুলোর অসাধারণ নামকরণ। যেমন: জীবন নীড়, পথিক রোমিও, অলস গান, মনের রাজ্য, তারা ভরা রাত, চাঁদের আলো। সামনে ও পিছনে রুমগুলোর দু’দিকেই আছে নীল দিগন্ত বেষ্টিত খোলা বারান্দা। আরো আছে অ্যাটাচড ওয়াশরুম। প্রতিটি রুমের জন্য ভাড়া হিসেবে আপনাকে গুনতে হবে ৩ হাজার টাকা। আর পুরো কটেজের ভাড়া ৬ হাজার টাকা। কাপল রুম হলেও এক রুমে চাইলে ৪ জনও থাকতে পারবেন। সেক্ষেত্রে আপনাকে ৫০০ টাকা চার্জ দিয়ে অতিরিক্ত বেড নিতে হবে।

রিসোর্টির পাশেই রয়েছে নীলাচল ফরেস্ট হিল রেস্টুরেন্ট। যেখানে আপনি পাবেন সুস্বাদু খাবারের স্বাদ। নানা দেশি খাবারের সঙ্গে বান্দরবানের ঐতিহ্যবাহী সুস্বাদু খাবার পাবেন এখানে। ভাত, ডাল, আলু ভর্তা, শুঁটকি, সবজি, মুরগি, মাছের সঙ্গে বাঁশের কিছু খাবারও পাওয়া যায়। আর এসব খাবারের দাম সাধ্যের মধ্যেই। তাই স্বাদ ও খরচের বেলায় খুব একটা ভাবতে হবে না। এখানে একইসঙ্গে অনেক বড় গ্রুপের খাবারও আয়োজন করা হয়। এমনকি বিশেষ কোনো দিন কিংবা জন্মদিন উদযাপনে পাবেন রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষের বাড়তি আয়োজন।

পাহাড়ের কোলে প্রকৃতির সুনসান নির্জনতায় আপন মনের জগতে চিরস্থায়ী ঠাঁই দিয়ে ফেলবেন নীলাম্বরিকে। কারণ পরতে পরতে মেঘের ভেজা গন্ধের মাঝে আপনি নিতে পারবেন সতেজতার নিঃশ্বাস। খোলা বারান্দা থেকে দিনের বেলা যত দূর দৃষ্টি যাবে দেখতে পাবেন সবুজ পাহাড়। আর রাতে আকাশে তাকালেই দেখতে পাবেন লাখ লাখ ঝিকমিক করা তারা। একইসঙ্গে নীলাচল ও নীলাম্বরির সৌন্দর্য হাতছাড়া করতে না চাইলে পরিবার নিয়ে কিংবা দল বেঁধে ঘুরে আসতে পারেন এই রিসোর্ট থেকে।

যেভাবে যাবেন:

রিসোর্টটি বান্দরবান শহর থেকে ৫ কিলোমিটার দূরে টাইগারপাড়া এলাকায় অবস্থিত। শহর থেকে চান্দের গাড়ি ও সিএনজি চালিত অটোরিকশাতে করে যাওয়া যায় এখানে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com