1. b_f_haque70@yahoo.com : admin2021 :
  2. editor@cholojaai.net : cholo jaai : cholo jaai
নিউজিল্যান্ডের ট্যুরিস্ট ভিসা
শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ০৩:৪০ অপরাহ্ন

নিউজিল্যান্ডের ট্যুরিস্ট ভিসা

চলযাই ডেস্ক :
  • আপডেট সময় সোমবার, ১২ জুলাই, ২০২১

বাংলাদেশে নিউজিল্যান্ডের হাই কমিশন না থাকায় ভারতের মুম্বাই অথবা কোলকাতা এ অবস্থিত নিউজিল্যান্ডের ভিসা প্রোসেসিং অফিস যাবতীয় ভিসা সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো দেখাশুনা করে। তাই বাংলাদেশ থেকে যদি কেউ ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে চায়, তাহলে ভারতের মুম্বাই অথবা কোলকাতায় অবস্থিত নিউজিল্যান্ডের ভিসা সংক্রান্ত অফিসের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

ট্যুরিস্ট ভিসার মেয়াদ:

নিউজিল্যান্ডে বেড়াতে যাবার জন্য একজন ট্যুরিস্টকে সাধারণত তিন (৩) মাসের ট্যুরিস্ট ভিসা দেয়া হয়। যদি ভ্রমণকারীর আরও দীর্ঘ মেয়াদি ভিসার প্রয়োজন হয় যেমন – ৯ মাস অথবা ১৮ মাস তাহলে কারণ দেখানো সাপেক্ষে ৯ মাস অথবা ১৮ মাস, অর্থাৎ ভ্রমণের জন্য যতদিন আপনার লাগতে পারে তার প্রেক্ষিতে আপনাকে ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে।

ট্যুরিস্ট ভিসা ফী:

বাংলাদেশ থেকে নিউজিল্যান্ডের ট্যুরিস্ট ভিসার আবেদনের সময় ভিসা ফী ব্যাংক চেক অথবা ব্যাংক ড্রাফট এর মাধ্যমে জমা দেয়া যাবে। বাংলাদেশীদের জন্য টুরিস্ট ভিসার আবেদন করতে হলে ভারতের নিউ দিল্লীতে অবস্থিত নিউজিল্যান্ডের ভিসা সেন্টার থেকে আবেদন করতে হবে। ট্যুরিস্ট ভিসার আবেদনের জন্য ৮৬০০ ইন্ডিয়ান রুপি অথবা ১৪৫ ইউএস ডলার (১১,৩৫১ টাকা) ভিসা ফী হিসেবে জমা দিতে হবে। ভিসা ফী ইন্ডিয়ান রুপিতে জমা নেয়া হয়। ট্যুরিস্ট ভিসার আবেদনের সময় ক্রেডিট কার্ডের (মাস্টার কার্ড অথবা ভিসা) মাধ্যমে ভিসা ফী জমা দেয়ার কোন ব্যবস্থা আপাতত নেই

নিউজিল্যান্ডের ট্যুরিস্ট ভিসা আবেদনের নিয়ম:

  • আবেদনকারীর অরিজিনাল পাসপোর্ট
  • নিউজিল্যান্ডের ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য সঠিক সব তথ্য দিয়ে পূরণ করতে হবে
  • পাসপোর্ট সাইজের ২ রঙ্গিন কপি ছবি লাগবে
  • পাসপোর্টের মেয়াদ ৩ মাসের বেশি হতে হবে
  • নিউজিল্যান্ড যাওয়া এবং নিউজিল্যান্ড থেকে আসার জন্য টিকিত অথবা পর্যাপ্ত অর্থ আছে কিনা তার প্রমাণপত্র
  • নিউজিল্যান্ডে বেড়ানোর জন্য পর্যাপ্ত অর্থ আছে কিনা তার প্রমাণপত্র। যেমন – ট্যুরিস্ট ভিসায় ১ মাস নিউজিল্যান্ড থাকতে চাইলে ১০০০ নিউজিল্যান্ড ডলার, আর যদি যাওয়ার পূর্বেই থাকার জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ দিয়ে রাখা হয় তাহলে ১ মাসের জন্য ৪০০ নিউজিল্যান্ড ডলারের প্রমাণপত্র অবশ্যই দেখাতে হবে। আপনি যত দিন থাকতে চাবেন তত দিনের তথ্য দেখাতে হবে।
  • যদি অন্য কেই আপনাকে আর্থিক সাহায্য করতে চায়, তবে তার তথ্য ফর্মটিতে সঠিক ভাবে পূরণ করে আবেদনপত্রের সাথে জমা দিতে হবে
  • আবেদনকারীর মোবাইল নাম্বার, ইমেইল এড্রেস, ভিসা প্রোসেসিং এর কাজ শেষ হওয়ার পর কাগজপত্র যে ঠিকানায় পাঠানো হবে তার ঠিকানা সঠিক ভাবে দিতে হবে

ভিসা আবেদনের জন্য ছবি:

  • পাসপোর্ট সাইজের ২ কপি ছবি লাগবে
  • ছবি ৬ মাসের বেশি পুরনো হওয়া যাবে না
  • ছবিতে কোন কিছু পরিবর্তন করা যাবে না
  • আবেদনকারীর চেহারা স্পষ্ট ভাবে বোঝা যেতে হবে।
  • ছবি রঙ্গিন হতে হবে। কালো এবং সাদা ছবি গ্রহণযোগ্য নয়
  • ছবির পটভূমি সাধারণ এবং হালকা রঙ্গের হতে হবে কিন্তু সাদা রঙ্গের পটভূমি হওয়া যাবে না
  • মুখমণ্ডল ও চোখের উপরে কোন চুল থাকা যাবেনা। চোখ স্পষ্ট ভাবে বোঝা যেতে হবে।
  • ছবি তোলার সময় কোন সানগ্লাস, লেন্স ব্যবহার করা যাবে না। যদি আবেদনকারী চশমা ব্যবহার করেন তবে তাকে চশমা ছাড়া ছবি তুলতে হবে।
  • মাথায় কোন প্রকার টুপি অথবা মাথায় বাঁধার ফিতা অথবা কাপড় থাকা যাবেনা। শুধু মাত্র ধর্মীয় ক্ষেত্রে এবং রুগী ও মেডিকেল কাজের জন্য মাথায় কাপড়, টুপি অথবা ফিতা দেয়া যেতে পারে।
  • অনলাইনে আবেদনের সময় –
    –    ছবি jpg অথবা jpeg ফরমেটে হতে হবে
    –    ছবির সাইজ ৫০০ কিলোবাইট থেকে ১০ মেগাবাইট এর মধ্যে হতে হবে
    –    ছবির আকার প্রস্থে ৯০০ পিক্সেল ও উচ্চতা ১২০০ পিক্সেল থেকে প্রস্থে ৪৫০০ পিক্সেল ও উচ্চতা ৬০০০
    পিক্সেল এর মধ্যে হতে হবে
    –    ছবির অনুপাত হতে হবে ৪:৩ (4:3)
  • যদি ভিসার জন্য আবেদনপত্র কাগজে পূরণ করে জমা দিতে হয় তখন ছবির সাইজ হবে প্রস্থে ৩৫ মিমি এবং উচ্চতা ৪৫ মিমি।

নিউজিল্যান্ডের ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য মেডিকেল সার্টিফিকেট:

  • যদি ৬ মাসের বেশি নিউজিল্যান্ডে ট্যুরিস্ট ভিসায় থাকতে চান, তবে মেডিকেল সার্টিফিকেট প্রয়োজন হবে। মেডিক্যাল সার্টিফিকেটের জন্য ফর্মটি সঠিক ভাবে পূরণ করে জমা দিতে হবে।
  • ব্লাড অথবা প্লাজমা ট্রান্সফিউশন এর মেডিকেল রিপোর্ট
  • এইচ আই ভি (HIV) অথবা হেপাটাইটিস বি/সি আছে কিনা, তার মেডিকেল রিপোর্ট
  • কোন রকম নেশাজাতিয় ড্রাগ নেয়া হতো কিনা তার মেডিকেল রিপোর্ট
  • যক্ষ্মারোগ আছে কিনা তার রিপোর্ট
  • মেডিকেল সার্টিফিকেটগুলো অবশ্যই ট্যুরিস্ট ভিসা আবেদনের দিন থেকে ৩ মাসের কম সময়ের হতে হবে।

ট্যুরিস্ট ভিসা প্রসেসিং এর সময়:

ট্যুরিস্ট ভিসা প্রসেসিং এর জন্য সাধারণত দশ দিন লাগতে পারে। ভিসা প্রসেসিং এর জন্য কতদিন সময় লাগবে তা আবেদনকারীর তথ্য যাচাই এবং মূল্যায়ন করার উপর নির্ভর করে। তবে সাধারণত কত দিনের মধ্যে ভিসা প্রসেসিং এর কাজ শেষ হতে পারে তা আবেদনের সময় জানিয়ে দেয়া হয়।

 

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com