চলো যাই দুবাই ঘুরে আসি

শপিং ফেষ্টিভাল, বিলাশবহুল হোটেল নিয়ে দুবাই শহর। এখারকার প্রাচুর্যের শহরের রন্দে রন্দে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে ঐতিহ্য আর আধুনিকতার ছোয়া। এ সিটি উইথ লাক্সারি। তবে বিলাসিতার সাথে আছে এ্যলিগ্যান্স আর ট্র্যাডিশনের ছাপ। মরুভূমির মধ্যে এত প্রান প্রাচুর্যে ভরা হতে পারে তা না দেখলে বুঝতে পারবেন না।

মনোরম সৌন্দর্যে দুবাই যেন আরব্য রজনীর পাতা থেকে উঠে আসা কোন এক রূপকথা। যার পরতে পরতে লুকিয়ে রয়েছে মায়াবি সম্মোহনি। চোখ ধাধানো শপিং মল, বিলাসবহুল বাড়ী, গাড়ী, রেস্তোরা, ফ্যাশন হাউজ, বুর্জ আল খলিফা ছাড়াও দেখার আছে অনেক কিছু। ঘুরে আসতে পারেন দুবাই শপিং ফেষ্টিভাল, গেøাবাল ভিলেজ, ডেজার্ট সাফারি। দুবাই যেন সবার জন্য একটি ড্রিম ডেষ্টিনেশন। একরাশ উত্তেজনা নিয়ে বেরিয়ে পড়–ন।

দুবাই সিটি ট্যুর:

দুবাই ঘুরে দেখুন এখানকার ওপেন টপ বাসে, রোলার কোষ্টার রাইড, দুবাই মিউজিয়াম, তৈরী জিনিস আর হাতে বোনা হস্তশিল্প আপনাকে মুগ্ধ করবে।

দুবাইকে বলা হয় সিটি অব গোল্ড। গোল্ড স্যুকের দোকানগুলোতে থরে থরে সাজিয়ে রেখেছে সোনার গহনা। সব এক্সক্লুসিভ গয়না পাবেন এখানে। প্রায় ৩০০ জুয়েলারি সপ আছে এখানে। দুবাই গেলে একবার স্পাইস স্যুকে যেতে ভুলবেন না। সব ধরনের মশলা পাবেন এখানে।
মল অব এ্যমিরেইটসে পাবেন আধুনিকতা ও প্রাচুর্যের ছাপ। এই শপিং মলটির মধ্যে রয়েছে কৃত্রিম স্কি রিসোর্ট। স্কি দুবাইয়ে রয়েছে ইনভোর পার্ক।

এছাড়া ওয়াফি মল হচ্ছে নামিদামী ব্রান্ডগুলোর জন্য বিখ্যাত। স্যুক অব মদিনাতে জ্যুমেইরা বিখ্যাত হিট পারফরমার্দের জন্য। আরব দেশের শিল্পীদের মিলনমেলা। শিল্পীদের নাচ গান উপভোগ করতে পারেন এখানে। একটু এগুলেই সবচেয়ে সুন্দর দি জুমাইরা মসজিদ চোখে পড়বে।

জুমাইরা পাম আইল্যান্ড বেশ রোমান্টিক। এখানে আছে বেশ কিছু রোমান্টিক আইল্যান্ড। হানিমুনের জন্য পারফেক্ট ডেষ্টিনেশন।এখানে আছে আটলান্টিস রিসোর্টের মতো বিলাশবহুল বিচ হোটেল, ভিলা, ওয়াটার পার্ক, শপিং মল আর স্পা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: