বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০১:৫২ অপরাহ্ন

ঘুরে আসুন বুলগেরিয়া

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২১

বলকান অঞ্চলের ছোট একটি দেশ বুলগেরিয়া। এই দেশকে ইউরোপের হীরা হিসেবে অভিহিত করা হয়। বুলগেরিয়ায় রয়েছে অসংখ্য দর্শনীয় স্থান। আজ আপনাদের জানাবো বুলগেরিয়ার সেরা ১০ দর্শনীয় স্থান সম্পর্কে। আসুন জেনে নেয়া যাক-

১. বুর্গাস

সমুদ্রের পাশে নান্দনিক শোভামণ্ডিত বুর্গাস শহর বিংশ শতাব্দিতে গড়ে ওঠে। এই শহরে সমুদ্রের পাশাপাশি রয়েছে অনেকগুলো হ্রদ। শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত রয়েছে শিল্পকেন্দ্র। মানুষ এই শহরকে অনেক পছন্দ করে।

২. কোপ্রিভস্টিটসা

কোপ্রিভস্টিটসা শহরের মানুষ অনেক শান্তিপ্রিয়। শহরটিতে রয়েছে বুলগেরিয়ার ঐতিহ্যবাহী স্থাপত্যের নিদর্শন। এই শহরে দেশটির ঐতিহ্যবাহী গানের উৎসব হয়। কেপ্রিভস্টিটসা শহরের প্রধান আকর্ষণ অসলেকভ হাউস। ১৮৫৬ সালে এক সম্ভ্রান্ত ধনীলোক এই বাড়ি নির্মাণ করেন।

৩. সজোপুল

বুলগেরিয়ার সবচেয়ে পুরনো শহর সজোপুল। ৬১০ সালে এই শহরে গ্রিকরা প্রথম বসতি স্থাপন করে। এই শহরে ইউরোপের মধ্যযুগে নির্মিত গীর্জা, প্রাচীন দেয়াল ও সুরক্ষিত দুর্গ রয়েছে। ইতিহাসসচেতনদের কাছে এই শহরের নাম অনেক ভালো লাগার।

৪. ভেলিকো টার্নোভো

বুলগেরিয়ার ছোট শহর ভেলিকো টার্নোভো। এই শহরে রয়েছে সালেভেটস দুর্গ। দুর্গটি ১০০০ মিটার সুউচ্চ। এই দুর্গের জন্য ভেলিকো টার্নোভো শহর বিখ্যাত। এছাড়া এই শহরে রয়েছে নান্দনিক স্থাপত্যের মনোরম আশ্রম, অভিজাত ভবন ও সুশোভিত গীর্জা।

৫. বাঙস্কো

বাঙস্কো শহর বুলগেরিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে অবস্থিত। এই শহরে পিরিন মাউন্টেইন নামে একটি পাহাড় রয়েছে যা ২৯১৪ মিটার সুউচ্চ। রাজধানী সোফিয়া থেকে ১৬০ কিলোমিটার দূরে এই পাহাড় অবস্থিত। বাঙস্কো স্কি রিসোর্টে বুলগেরিয়ার সবচেয়ে বড় স্কিইং খেলা হয়ে থাকে। ফ্রান্স, সুইজারল্যান্ডেও এত বড় আয়োজন করে স্কিইং খেলা হয় না।

৬. ভার্না

বুলগেরিয়ার তৃতীয় বড় শহর ভার্না। ভার্না প্রত্নতাত্ত্বিক যাদুঘর দর্শনার্থীদের কাছে অনেক পছন্দের জায়গা। যাদুঘরটিতে পৃথিবীর পুরনো সোনা রয়েছে। ইতিহাসপ্রেমী পর্যটকরা এখানে ভ্রমণ করে থাকেন।

৭. নেসবার

নেসবার মনোরম সমুদ্রসৈকতের জন্য বিখ্যাত। এই শহরে অনেক গীর্জা রয়েছে। এসব গীর্জার মধ্যে উল্লেখযোগ্য সেন্ট স্টিফান গীর্জা ও ক্রিস্ট পাসটোক্র্যাটর। যেগুলো যথাক্রমে একাদশ ও ত্রয়োদশ শতাব্দিতে নির্মিত হয়।

৮. রিলা আশ্রম

রিলা পাহাড়ে রয়েছে রিলা আশ্রম। দশম শতকে সেন্ট জন অব রিলা নামে একটি গীর্জা কর্তৃক আশ্রমটি স্থাপিত হয়। শত শত তীর্থযাত্রী ও পর্যটক এখানে ভ্রমণ করেন। কয়েক শতাব্দি ধরে মানুষ আশ্রমটিকে আধ্যাত্মিকভাবে সম্মান করে আসছে।

৯. প্লভদিভ

ইউরোপের অন্যতম পুরনো শহর প্লভদিভ। এই শহরে অনেক ঐতিহাসিক স্থাপনা রয়েছে। শহরটিতে সাতটি পাহাড় রয়েছে। বলকান মাউন্টেইন ও রোডোপ মাউন্টেইন তার মধ্যে অন্যতম।

১০. সোফিয়া

সোফিয়া বুলগেরিয়ার রাজধানী হিসেবে পরিচিত। এই শহরে অসংখ্য গ্যালারি, মিউজিয়াম, পার্ক রয়েছে। এছাড়া বিকেলের বিনোদনের জন্য রয়েছে অনেকগুলো হ্রদ। মোদ্দাকথা, বুলগেরিয়ায় ভ্রমণ করলে সোফিয়া শহরে অবশ্যই যেতে হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com