ঘুরে আসুন নিকলি হাওর

আমরা ৫ জন চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন থেকে সকাল ৭ টা ২০ মিনিটের বিজয় এক্সপ্রেসে করে কিশোরগঞ্জের জন্য রওয়ানা হলাম I বিজয়ের টিকেট যেদিন যাবেন ভাগ্যক্রমে কাউন্টারে পেতেও পারেন না হয় আগে থেকে কেটে নিতে পারেন I  দুপুর ২ টা ১৫ মিনিটে আমাদের কিশোরগঞ্জ নামিয়ে দেয় যদি লাকসাম ১ ঘন্টা না থামে তাহলে দুপুর ১ টা ১৫ মিনিটে নামিয়ে দিবে I এই দিন বেশি গরম ছিলো বিধায় আমরা প্রথমে কিশোরগঞ্জ শহর ঘুরে দেখার জন্য রেলওয়ে স্টেশন থেকে টমটম ভাড়া করিI আমরা একে একে পাগলা মসজিদ গুরুদয়াল কলেজ কিশোরগঞ্জ মুক্তমঞ্চ ওয়াচ টাওয়ার শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দান ঘুরে দেখলাম…টাওয়ারে না উঠলে সেরা একটা ভিউ আপনি মিস করবেন I

কিন্তু…বিকাল সাড়ে ৪ টায় আমরা নিকলির উদ্দেশ্যে রওয়ানা হলাম…প্রায় ৫টা ১৫ মিনিটে আমাদের নিকলি বেড়িবাঁধ থেকে ২ কিলোমিটার আগে নামিয়ে দিল I তাড়াতাড়ি ঐইখানের দোকান গুলাতে হাওরের মাছ পাওয়া যায় ঐগুলো দিয়ে জমপেশ খেলাম…দ্রুত খানা শেষ করে রিকশা নিয়ে ভাইরাল হওয়া রাস্তা দিয়ে আগাতে লাগলাম…প্রায় ৫ টা ৪০ মিনিটে আমরা বেড়িবাঁধে নামলাম নেমে একটু ভাবে ছিলাম সেটা ভাত খাওয়ার হোটেল এর ভাইয়া শিখিয়ে দিয়ে ছিলো…ভাবে থাকলে নৌকার মাঝি আপনার কাছে আসবে আপনাকে যেতে হবে না I দরকষাকষি করে ২ ঘন্টার জন্য উঠে গেলাম মাঝারি নৌকাতে…আমরা একদম পারফেক্ট টাইমে হাওরে ঘুরলাম কারণ গরমের কোন তেজ নাই রোদও নাই…ছাতির চরে গিয়ে গোসল করার পর সারাদিনের ক্লান্তি দূর হয়ে যায় I

…ঐইদিনের গৌধূলি বেলা টা আসলে সুন্দর ছিলো…সন্ধ্যা ৭ টায় আকাশ ভরা তারা দেখতে দেখতে আবার বেড়িবাঁধ চলে আসলাম…রিকশা দিয়ে সিএনজি স্টেশন গেলাম সিএনজি তে করে কিশোরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনে গেলাম…নিকলির সিএনজি স্টেশন কিন্তু একদম স্টেশনের পাশেই I রাত সাড়ে ১০ টায় আবার বিজয় এক্সপ্রেসে উঠে পরলাম…যাওয়ার সময় মোটামুটি লোকাল ছিলো কিন্তু ফিরার পথে মারাত্মক লোকাল ছিলো…সকাল সাড়ে ৫ টায় আমাদের চট্টগ্রাম নামিয়ে দেয়… খরচের বিবরণ: চট্টগ্রাম থেকে কিশোরগঞ্জ ২০০ টাকা স্টেশন নেমে টমটম ভাড়া করলাম ৩০০ টাকা নিকলির জন্য লোকাল মাহিন্দ্রাতে উঠলাম জনপ্রতি ৪৫ টাকা দুপুরের ভাত জনপ্রতি ৮০ টাকা বেড়িবাঁধ পর্যন্ত রিকশা ৫০ টাকা নৌকা ২ ঘন্টার জন্য ৫০০ টাকা আবার রিকশা সিএনজি স্টেশন পর্যন্ত ৫০ টাকা সিএনজি ৩৫০ টাকা জনপ্রতি ৭০ টাকা কিশোরগঞ্জ থেকে চট্টগ্রাম ২০০ টাকা আমাদের জনপ্রতি ৮০০ টাকা খরচ হয়েছিলো পরিবেশ নষ্ট হয় এমন কিছু করবেন না আর ঐই লোকাল ট্রেনে ধৈর্য নিয়ে যাতায়াত করবেন এবং হিজড়া যদি টাকা খুঁজে দিয়ে বিদায় করবেন আর যাবতীয় জিনিসপত্র চোখের সামনে সামনে রাখবেনI

শুক্র শনিবার বাদে যে কোন দিন ঘুরে আসলে আমাদের মতো খরচে ঘুরে আসতে পারবেন I

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: