সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৪:২৬ অপরাহ্ন
Uncategorized

কাশ্মির ও অমৃতসর ভ্রমণের গল্প

  • আপডেট সময় রবিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২১

০৭ তারিখ রাত ১০.১৫ মিনিটে নন-এসি গাড়িতে ৬০০ টাকা দিয়ে বেনাপোল। বেনাপোল পার হয়ে অটো তে করে বনগা রেলস্টেশন ৩০ রুপি, ওখান থেকে ২০ রুপি দিয়ে কলকাতা। কলকাতায় ৯ তারিখ রাত পর্যন্ত ছিলাম। ১০ তারিখ সকাল ১১.৪৫ মিনিটে কলকাতা স্টেশন থেকে জম্মু-তাওয়াই এক্সপ্রেস নন এসি স্লিপারে করে যাত্রা শুরু। টিকেট বাংলাদেশ থেকে এজেন্সির মাধ্যমে দেড় মাস আগেই নিয়েছিলাম(যাওয়া-আসা ২৪০০ টাকা)।

১২ তারিখ সকাল ১১.০০ টায় জম্মু স্টেশনে পৌছালাম। সন্ধ্যা ৬.০০ টায় পাবলিক বাসে অনন্তনাগের উদ্দেশ্যে যাত্রা (ভাড়া- ৬৫০ রুপি)। অনন্তনাগ থেকে পেহেলগামের ভাড়া ১০০ রুপি জন প্রতি। পেহেলগামে হোটেলে রুম নিলাম ৬০০ রুপি দিয়ে (৩ জন)। ১৩ তারিখ দুপুর থেকে ১৮০০ রুপি দিয়ে রিজার্ভ কার নিয়ে আরু ভ্যালি, চন্দনওয়ারি, বেতাব ভ্যালি ঘুরে দেখলাম। ১৪ তারিখ ৮০০ রুপি ঘোড়া ভাড়া নিয়ে বাইসারান ভ্যালি ঘুরে আসলাম এবং দুপুরে অনন্তনাগ হয়ে শ্রীনগরে চলে আসলাম (জনপ্রতি ২০০ রুপি খরচ হল)।

শ্রীনগরের ডাল লেকে হাউস বোটে ৬০০ টাকা (৩ জন)দিয়ে রুম নিলাম। এইদিন সন্ধ্যায় দোতলা খোলা বাসে করে গানের তালে তালে ডাল লেকের সাইট সিন করলাম। ১৫ তারিখ সকাল ৮ টায় ২০০০ (৫ জন) টাকায় রিজার্ভ কারে করে সোনমার্গের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু। সোনমার্গ নেমে ৮৫০ রুপি তে ঘোড়া ভাড়া নিয়ে বরফ দেখতে রওনা হলাম। সোনমার্গ শেষে সন্ধ্যায় শ্রীনগরে চলে আসলাম এবং যার যার মত করে শপিং করলাম।রাতে শ্রীনগরের বিখ্যাত খাবার গুলি খাওয়া হল। হাউস বোটেই রাত্রি যাপন। ১৬ তারিখ সকাল ৮.০০ টায় ১৫০০ রুপি (৫ জন) রিজার্ভ কারে করে শ্রীনগরের লোকাল দর্শনীয় স্থান সূমহ দেখতে লাগলাম। বিকেলে শ্রীনগর থেকে ২০ রুপি দিয়ে বানিহাল পৌছালাম ট্রেনে। বানিহাল থেকে ৩০০ রুপি দিয়ে শেয়ার ট্যাক্সিতে করে জম্মু পৌছালাম রাত ১১.০০ টায়। রাত ১২.০০ টায় জম্মু থেকে ৫০০ রুপি দিয়ে স্লিপার বাসে করে অমৃতসরের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু। রাত ৩.৩০ টায় অমৃতসর পৌছালাম এবং ৮০০ রুপি (৩জন) দিয়ে হোটেলে রুম নিলাম। ১৭ তারিখ ৮০০ রুপি(৩ জন) রিজার্ভ অটো নিয়ে অমৃতসর স্বর্ণ মন্দির, ওয়াগা বর্ডার, অন্যান্য মন্দির সূমহ ঘুরে দেখলাম। রাতে হোটেল অবস্থান। ১৮ তারিখ যার যার মত কেনাকাটা, ঘুরাঘুরি, খাওয়া-দাওয়া করলাম। ১৯ তারিখ জম্মু থেকে পাঠানকোট আসলাম ট্রেনে ফ্রিতে।

১৯ তারিখের ট্রেন cancel হওয়ায় ২০ তারিখের ওয়েটিং টিকেট নিলাম(৬৯০ রুপি) এবং ঐ দিন রাতে ও হোটেলে ছিলাম(৮০০ রুপি ও ২ জন)। ২০ তারিখ রাত ১০.১৫ মিনিটে পাঠানকোট থেকে কলকাতার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু। ২২ তারিখ রাত ৮ টায় কলকাতায় পৌছালাম এবং হোটেলে রুম নিলাম ৯০০ টাকা দিয়ে ( ৩ জন)। ২৩ তারিখ সকালে কলকাতা থেকে ২০ রুপি দিয়ে বনগা ট্রেনে, বনগা থেকে ৩০ রুপি দিয়ে অটোতে বেনাপোল। বর্ডার পার হয়ে ৮০০ টাকা দিয়ে এসি বাসে ঢাকায় গমন।

*এই ভ্রমণে কলকাতা ২ দিন, কাশ্মির ৪ দিন ও অমৃতসর ৩ দিন সর্বমোট খরচ হয়েছে ২২০০০ বাংলাদেশি টাকা (খরচ আরো কমত যদি আসার ট্রেন cancell না হত (পুনরায় টিকিট নিতে হইছে) এবং ১ দিন অতিরিক্ত হোটেলে থাকতে না হত

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com