মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৯:২৯ পূর্বাহ্ন

ইমিগ্রেশন ও আপনি: আপনার জিজ্ঞাসা

  • আপডেট সময় শনিবার, ৬ জানুয়ারি, ২০২৪
A woman holds a child's hand as they arrive for a rally in support of immigrants' rights in New York City Dec. 18, 2016. Cardinal Daniel N. DiNardo of Galveston-Houston and Archbishop Jose H. Gomez of Los Angeles called attention in a Jan. 6 statement the hardships and contributions of immigrants to American society as the U.S. church prepared to observe National Migration Week. (CNS photo/Gregory A. Shemitz) See USCCB-MIGRATION-HOPE Jan. 6, 2017.
ইমিগ্রেশন ও আপনি বিভাগ থেকে আপনাদের সবার জন্য রইলো ইংরেজি নববর্ষের শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ। আশা করি আপনারা সবাই সুস্থ ও নিরাপদে আছেন। আপনাদের মঙ্গলময় জীবনই আমাদের কাম্য, আর তাই ইমিগ্রেশন বিষয়ে যে কোন প্রয়োজনে আমরা আপনাদের সাহায্যের জন্যে প্রস্তুত। এ বিভাগ আপনাদেরই জন্য। এ কারণে এই বিভাগের মাধ্যমে আপনারা এতটুকু উপকৃত হলে আমরা আনন্দিত হবো। প্রতি সপ্তাহের মতো এ সপ্তাহে আপনাদের পাঠানো চিঠিগুলো আমাদের হাতে এসে পৌঁছেছে। আপনাদের পাঠানো চিঠি থেকে পর্যায়ক্রমে আমরা তার উত্তর দিয়ে থাকি।

নিউইয়র্ক থেকে কামাল আহমেদের প্রশ্ন:

প্রায় সপ্তাহে এই বিভাগের ভিসা বুলেটিন প্রকাশ করা হয়। অধিকাংশ সময়ে ভিসা বুলেটিনে প্রায় পূর্বের মাসের মতই একই অগ্রাধিকার থাকে। তাছাড়া ইউএস স্টেট ডিপার্টমেন্টের ওয়েব সাইটে দেখা যায় পরিবার ভিত্তিক ক্যাটগরির ২টি ভিন্ন চার্ট। আর দু’টিরই দুটি পৃথক অগ্রাধিকার। এ ব্যাপারে আমি অনেকটা বিভ্রান্ত আর বুঝতে পারি না যে কোনটি অনুসরণ করতে হবে।
এ ব্যাপারে আপনার পরামর্শ কামনা করছি। দিচ্ছি কামাল আহমেদের প্রশ্নের উত্তর:
ভিসা বুলেটিনে দ্বৈত চার্ট ব্যবস্থা:
গত কয়েক বছর ধরে স্টেট ডিপার্টমেন্ট পরিবার ভিত্তিক (এফবি) এবং চাকরি ভিত্তিক (ইবি) ক্যাটাগরিতে কাট অফ’র তারিখে পৃথক স্টেট সহ ২টি চার্ট প্রকাশ করে যাচ্ছে। একটি চার্ট ফাইনাল এ্যাকশন হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে (সাধারণত প্রথম চার্টকে চার্ট এ বলা হয়)।

এই চার্টটিতে একজন আবেদনকারীর গ্রিনকার্ড অথবা ভিসা প্রকৃতপক্ষে যখন অনুমোদন লাভ করতে পারে তার ইঙ্গিত পাওয়া যায়। আর দ্বিতীয় চার্টটি হয় ন্যাশনাল ভিসা সেন্টারে সাক্ষাতকারের জন্য চ‚ড়ান্তভাবে কাগজপত্র ফাইল করার লক্ষ্যে (এই চার্টটিকে সাধারণতঃ চার্ট বি বলা হয়)।

প্রকৃতপক্ষে এটাই আসল তারিখ যখনর ইমিগ্র্যান্ট ভিসা আবেদনকারীদের ন্যাশনাল ভিসা সেন্টার বা কনস্যুলেটে ভিসা প্রক্রিয়ার জন্য সকল কাগজপত্র জমা দিতে বলা হয়। সুতরাং ফাইনাল এ্যাকশন চার্টে দেয়া অগ্রাধিকার হচ্ছে আসল তারিখ ইমিগ্র্যান্ট ভিসা বা গ্রিনকার্ড অনুমোদন করার।

চার্ট বি ভিসা আবেদন:

ফাইল ফাইনাল করার ইঙ্গিত দেয়। প্রাপ্তি দূর করার লক্ষ্যে আমরা সাধারণত কেবল চার্ট ‘এ’ অর্থাৎ ফাইনাল এ্যাকশন ডেটস ফর ফ্যামিলি স্পন্সরড অগ্রাধিকার কেসগুলোকে প্রকাশ করা হয়ে থাকে।

ইউএস স্টেট ডিপার্টমেন্টের ওয়েব সাইটে প্রতি মাসে ফ্যামিলি ভিত্তিক এবং চাকরি ভিত্তিক অগ্রাধিকার উভয় চার্ট-ই প্রকাশ করে থাকে। বিস্তারিত জানতে তাদের ওয়েব সাইট ভিজিট করতে পারেন।

নিউইয়র্ক থেকে ফয়সল খানের প্রশ্ন:

আমি একটি প্রয়োজনে আর আপনার কাছে পরামর্শ পেতে এ চিঠি লিখছি। আশা করি আপনার পরামর্শ পেয়ে উপকৃত হব এবং কৃতজ্ঞ থাকবো। আমার জানার বিষয় হচ্ছে ইউএস সিটিজেনের সাথে বিয়ের পর গ্রিনকার্ড পেলে এবং শেষ পর্যন্ত সেই বিয়ে না টিকলে অর্থাৎ ডিভোর্স হলে গ্রিনকার্ডের অবস্থা কেমন হয়? অর্থাৎ গ্রিনকার্ড বাতিল হয়ে যায় নাকি স্বাভাবিক থাকে?
এই বিষরে মতোই একটি লেখা এ বিভাগে দেখেছিলাম। আজ আমি আমার প্রয়োজনে লিখলাম। কারণ ইমিগ্রেশন বিষয়ে তেমন কিছু জানিনা বলে বন্ধুরা নানা রকম পরামর্শ দেয়।

ফয়সল খানের প্রশ্নের উত্তর:

অনেকক্ষেত্রে ডিভোর্সের পর পারমানেন্ট রেসিডেন্টরা গ্রিনকার্ড পেতে অনেক নতুন চ্যালেঞ্জের সম্মুখিন হয়। কেউ কেউ আইনসম্মত রেসিডেন্ট হিসেবে অনেকে গ্রিনকার্ড পেয়ে থাকেন। তবে বিয়ের স্ট্যাটাস সরাসরি ইমিগ্রেশন স্ট্যাটাস ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে না।

আবার কেউ যদি কোন ইউএস সিটিজেন বা পার্মানেন্ট রেসিডেন্টকে বিয়ে করে গ্রিনকার্ড পেয়ে থাকেন তবে ক্ষেত্রে ডিভোর্স, সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে। এক্ষেত্রে ইউএসসিআইএস ২ বছর শর্তসাপেক্ষে গ্রিনকার্ড দিয়ে থাকে। এই ২ বছরকে ইউএস সিআইএস বিয়ের বিশ্বাসযোগ্যতা মূল্যায়নের সুযোগ হিসেবে কাজে লাগায়। ইমিগ্রেশন আইন দেখতে চায় ঐ ২ বছরের বিয়েটা বিশ্বাসযোগ্য অবস্থায় পেছেছে-এ শর্তসাপেক্ষে নির্ধারিত সময়ের শেষে দম্পতি তাদের বিয়ের বিশ্বাসযোগ্যতার প্রমানসহ অবশ্যই যৌথভাবে আবেদন করবেন। এবং ফর্ম আই-৭৫১ প্রমাণসহ পুরুন করে শর্ত প্রত্যাহারের টিপিশন দাখিল করবেন। ফর্ম-৭৫১ হচ্ছে যৌথ পিটিশন এবং এতে স্বামী-স্ত্রী উভয়ের স্বাক্ষর করতে হবে।
শর্ত সাপেক্ষ গ্রিনকার্ড পাবার পর ডিভোর্স হলে কী হবে?

এর আগেও উল্লেখ করা হয়েছে যে কোন ইউএস সিটিজেন বা কোন পার্মানেন্ট রেসিডেন্ট বিয়ের শর্ত সাপেক্ষে গ্রিনকার্ড পাবার পর ডিভোর্স দিলে সেক্ষেত্রে সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে। বিয়ের মাধ্যমে গ্রিনকার্ড পাওয়ার ক্ষেত্রে ২ বছরের শর্তসাপেক্ষে সময়ের মধ্যে ডিভোর্স হয়ে যায় তবে শর্ত মওকুফের জন্য যৌথ আবেদন জরুরী। তবে এক্ষেত্রে ইউএসসিআইএস কেসটিকে অতিরিক্ত সতর্কতা নিবে যাচাই করে। তারা নিশ্চিত হেেত চায় এটা প্রকৃত বিয়ে কিনা? তারা একে অপরের প্রতি কমিটেড থাকা সত্বেও বিচ্ছিন্ন হয়েছে এর প্রমাণের দায়িত্ব যিনি শর্তসাপেক্ষ গ্রিনকার্ড পেয়েছেন তার উপর।

এক্ষেত্রে পরামর্শ হচ্ছে আবেদনকারীকে আবেদনের সঙ্গে ডিভোর্সের রায়, কেন ডিভোর্স হলো তার বিশ্বাসযোগ্য যুক্তি দেখাতে হবে। ইমিগ্রেশন প্রমাণ করতে হবে যে বিয়েটা প্রকৃত বিয়ে ছিলো- গ্রিনকার্ড পওয়ার জন্য এই বিয়ে ছিলো না। এক্ষেত্রে যতবেশি যুক্তি প্রমাণ উপস্থাপন করা করা সম্ভব তা সংযুক্ত করতে হবে। অর্থাৎ আবেদনের সঙ্গে যথাযথ এবং যুক্তিসঙ্গত ও বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ উপস্থাপন করতে হবে।

এ ব্যাপারে যথাযথ ও বিস্তারিতভাবে এবং সু²ভাবে কেসটি সম্পর্কে ধারণা পাবার জন্য প্রয়োজনবোধে একজন অভিজ্ঞ ইমিগ্রেশন এটর্নীর সাথে সাক্ষাতে আলোচনা করে অগ্রসর হওয়া ভালো। আপনাদের সমস্যা সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করলে তবেই তার জন্য সঠিক পরামর্শ পওয়া সম্ভব।

ইমিগ্রেশন বিষয়ে যে কোন প্রয়োজনে আমাদের সাথে যোগাযোগের ঠিকানা: ২২৫ ব্রডওয়ে (৩৮ তলা), নিউইয়র্ক ১০০০৭।
ফোন: ২১২-৫১৩-৭৪৭৪
ফ্যাক্স: ৯১৪-৪৬২-৩৯৯০
ই-মেইল: kazmiandreeves@gmail.com এ লিখে ই-মেইল করলে অবশ্যই ‘বাংলা পত্রিকার জন্য’ কথাটি উল্লেখ করবেন।
অনুবাদ: হুসনে এ. বেগম।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com