বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৯:৫৯ অপরাহ্ন

ইউরোপে প্রবাসী বাংলাদেশীদের বৈধ অভিবাসনের সুযোগ

  • আপডেট সময় বুধবার, ৪ অক্টোবর, ২০২৩

ইউরোপের দেশগুলোতে বাংলাদেশী প্রবাসীদের বৈধ অভিবাসনের ভালো সুযোগ আছে। ব্রেক্সিটের পর ইংল্যান্ডে নতুন সুযোগ তৈরি হয়েছে। ইতালিতেও সুযোগ বাড়ছে। তবু চলছে ঝুঁকি নিয়ে অবৈধপথে বাংলাদেশী দের  ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টা।

একটা সময় ডিভি ভিসা দিয়ে বাংলাদেশিদের মাঝে অ্যামেরিকা যাওয়ার ব্যাপক প্রবণতা ছিল। এখন বাড়ছে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে যাওয়ার প্রবণতা। শিক্ষা, উন্নত জীবন এবং ভালো আয়ের জন্যই এই প্রবণতা।

কিন্তু অনেকেই না জেনে অবৈধভাবে বা দালালদের মাধ্যমে বিকল্প পথে, বিশেষ করে তৃতীয় দেশ হয়ে সমুদ্র পথে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে ঢোকার চেষ্টা করে নিজেরা বিপদে পড়ছেন, দেশের সুনামও ক্ষুণ্ন করছেন।

ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইতালিতেই বৈধভাবে সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশি গেছেন। এই সংখ্যা সরকারি হিসবে ৫০ হাজারের মতো। যুক্তরাজ্যে গেছে ১৫ হাজারের মতো। তার বাইরে অনেক দিন ধরেই সিলেট অঞ্চলের অনেক লোক সেখানে অভিবাসী হয়েছেন।

গত দুই-তিন বছরে এক লাখেরও বেশি বাংলাদেশি অবৈধভাবে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে ঢুকে আশ্রয়প্রার্থী হয়েছেন। ব্র্যাকের অভিবাসন বিভাগের প্রধান শরিফুল হাসান জানান, ‘এ রকম অ্যাসাইলাম সিকার আছেন ইতালি, ফ্রান্স, জার্মানি, হাঙ্গেরি, সাইপ্রাসহ আরো কিছু দেশে। সবচেয়ে বেশি আছে ইতালিতে, ৩০ হাজার। অন্যান্য দেশে আছে ১০-১৫ হাজার করে।’

২০১৭ সালে ইইউ তাদের ফেরত পাঠাতে বাংলাদেশের সাথে স্ট্যান্ডার্ড অপারেশন প্রসিডিউর (এসওপি) চুক্তি সই করে। শরিফুল হাসান জানান, শুধু গত বছরই সমুদ্রপথে অবৈধ চার হাজার ৪২১ জন বাংলাদেশি ইউরোপে ঢোকার চেষ্টা করেন।

অভিবাসন নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন ব্যারিস্টার সাবরিনা জেরিন। পড়াশোনাও করেছেন ইংল্যান্ডে। তিনি জানান, ‘ইউরোপের মধ্যে সেরা হচ্ছে ইংল্যান্ড। সেখানে এখন পাঁচ বছরে নাগরিকত্ব পাওয়া যায়। বাবা-মা বাংলাদেশি হলেও সেখানে জন্ম নেয়া তাদের সন্তানরা এখন সহজেই ব্রিটিশ পাসপোর্ট পেয়ে যেতে পারে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com