সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:৫৬ অপরাহ্ন

অনাড়ম্বর পরিবেশে সিডনিতে ‘হাসন রাজা উৎসব’ উদযাপিত

  • আপডেট সময় সোমবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০২৩

কাজী সুলতানা শিমি: অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে হাসন রাজা উৎসব উদযাপিত হয়েছে। স্থানীয় সময় শনিবার ৯ ডিসেম্বর (শনিবার) হাসন রাজা পরিষদ আয়োজিত ব্যঙ্কসটাউনের ব্রায়ন ব্রাউন থিয়েটারে এই উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ থেকে আসা সেলিম চৌধুরী ও দীপ্তি রাজ বংশী ছিলেন এই উৎসবের মূল আকর্ষণ। পাশাপাশি এই প্রজন্মের সংগঠন পথ প্রোডাকশন এর বিশেষ পরিবেশনায় ছিল পিঞ্জীরা নামে নৃত্য ও গানের সমন্বয়ে একটি গীতি আলেখ্য। এছাড়াও, ছিল স্থানীয় শিল্পীদের নানা পরিবেশনা।

শুরুতেই অনুষ্ঠানের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও হাসন রাজার উত্তরাধিকারী সোলায়মান আশরাফী দেওয়ান ও শ্রাবন্তী কাজী হাসন রাজা ও তার সৃষ্টি সম্পর্কে একটি সংক্ষিপ্ত পরিচিতি তুলে ধরেন। এরপর স্থানীয় শিল্পীদের অংশগ্রহন শেষে দীপ্তি রাজ বংশীর অনন্য পরিবেশনা উপস্থিত দর্শকদের হৃদয়ে এক নস্টালজিক অনুভূতি সৃষ্টি করে। বিরতির আগে পরিবেশিত হয় হাসন রাজা বিষয়ক পথ প্রোডাকশনের পরিবেশনা পিঞ্জীরা। মনোমুগ্ধকর এই অনুষ্ঠানটির সার্বিক ব্যবস্থাপনায় সহযোগিতা করেন মোহাম্মাদ শাহে জামান টিটু।

বিরতির পর অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে শুরু হয় সেলিম চৌধুরীর একক পর্ব। তিনি হাসন রাজার স্মৃতি চারণ মূলক ছোট ছোট গল্প কথায় তার জনপ্রিয় গান গুলো দর্শকদের শোনান। হাসন রাজার গান ছাড়াও ভিন্ন কিছু গানও দর্শকদের গেয়ে শোনান। এরমধ্যে আজ পাশা খেলবো রে শ্যাম, বৃষ্টি পরে টাপুর-টুপুর পায়ে যে সোনার নুপুর, সহ হুমায়ন আহমেদের স্মরণে তার লেখা চাঁদনী পসর রাইতে কে আইসা দাড়ায় শুধু আমার দুয়ারে গানটি গেয়ে দর্শকদের বিমোহিত করেন। তিনি আরো অনেক গান করার ইচ্ছা থাকা স্বত্তেও সময়ের কারণে শোনাতে পারেননি বলে দুঃখ প্রকাশ করেন এবং পরের বার শোনাবার আশা ব্যাক্ত করেন। হাসন রাজা পরিষদের পক্ষ থেকে সিডনী অফিসের কনসুলেট জেনারেল শাখাওয়াত হোসেন সেলিম চৌধুরীকে সম্মাননা জানিয়ে ক্রেস্ট প্রদান করেন।

দেশ ছেড়ে চলে আসা কিংবা অস্ট্রেলিয়ায় বড়ো হওয়া বাংলাদেশিদেরকে দেশের শেকড়ের কথা স্মরণ করিয়ে দিতে এবং এখানে বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মকে তাদের পূর্ব-পুরুষের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে সোলায়মান আশরাফী দেওয়ান ও শ্রাবন্তী কাজী এই ‘হাসন রাজা উৎসব’ এর পরিকল্পনা করেন।

হাসন রাজার উত্তরাধিকারী এই যুগল প্রবাসে বাংলাদেশের ভাষা, শিক্ষা, সাহিত্য, সংস্কৃতি, ইতিহাস ও ঐতিহ্য সমুন্নত রাখতে প্রবাসিদের নানা অনুষ্ঠান ও কর্মসূচিতে সবসময় পৃষ্ঠপোষকতা করে থাকেন। সিডনিতে তাদের ‘অস্ট্রেলিয়ান ইন্টারন্যাশনাল অ্যাকাডেমি’ নামে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছ। হাসন রাজার স্মরণে অনুষ্ঠিত ‘হাসন রাজা উৎসব’ মূলত হাসন রাজার সৃষ্টি ও যাবতীয় অবদান সংরক্ষণ রাখার ও প্রজন্মকে পরিচিত করার একটি প্রয়াস।

অনুষ্ঠানের প্রধান পৃষ্ঠপোষকতায় ও সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিল এই দম্পতির প্রতিষ্ঠান প্রভাত ফেরী, অস্ট্রেলিয়ান ইন্টারন্যাশনাল অ্যাকাডেমি ও স্ট্যামফোর্ড এডুকেশন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com