শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:১০ অপরাহ্ন
Uncategorized

এক্সপ্রেস এন্ট্রি প্রক্রিয়ায় কানাডায় স্থায়ী হবেন যেভাবে

  • আপডেট সময় সোমবার, ২২ মার্চ, ২০২১

সারা পৃথিবী থেকে কানাডা প্রতিবছর বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় সে দেশে স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ দেয়। এর মধ্যে অন্যতম এক্সপ্রেস এন্ট্রি প্রক্রিয়া। এটি কানাডার ফেডারেল সরকারের জনপ্রিয় প্রক্রিয়াগুলোর মধ্যে একটি।

‘এক্সপ্রেস এন্ট্রি’ কী?

‘এক্সপ্রেস এন্ট্রি’ হলো কানাডা’র ইমিগ্রেশনের জন্যে এমন একটি প্রোগ্রাম যেখানে নির্দিষ্ট যোগ্যতার ভিত্তিতে একজন আবেদনকারী নিজ প্রোফাইল তৈরি করতে পারেন। এই প্রোফাইলকে বলা হয় ‘এক্সপ্রেস এন্ট্রি’ প্রোফাইল। ‘এক্সপ্রেস এন্ট্রি’ প্রোফাইলের মাধ্যমে আবেদনের জন্য একজন আবেদনকারীকে ন্যূনতম ব্যাচেলর ডিগ্রীধারী হতে হবে। একইসঙ্গে ন্যূনতম তিন বছরের ফুলটাইম বেতনভোগী চাকরির অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। আইইএলটিএস (ওঊখঞঝ) পরীক্ষায় যতো ভালো স্কোর থাকবে তার কানাডা যাওয়ার পথ ততো সহজ হবে।

‘এক্সপ্রেস এন্ট্রি’ প্রোফাইল:

‘এক্সপ্রেস এন্ট্রি’ প্রোফাইল খোলার জন্য কোনো এজেন্সি বা কোনো ব্যক্তির কাছে যাওয়ার প্রয়োজন নেই। কানাডা সরকারের এই ওয়েবসাইটে (যঃঃঢ়ং://িি.িপধহধফধ.পধ/) গিয়ে খুব সহজে প্রোফাইল খোলা যায়। প্রোফাইল খোলার পর ‘এক্সপ্রেস এন্ট্রি পুল’ এ অপেক্ষা করতে হবে। ‘এক্সপ্রেস এন্ট্রি পুল’ ওয়েটিং রুমের মতো। এখানে প্রোফাইল খুলে অপেক্ষা করতে হবে।

এটি কিছুটা ওয়েটিং রুমের মতো। এই ওয়েটিং রুমে ‘এক্সপ্রেস এন্ট্রি’ প্রোফাইল তৈরি করে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ইমিগ্রেশন প্রত্যাশী আবেদনকারীরা নিজ নিজ স্কোর নিয়ে অপেক্ষা করেন ‘ইনভাইটেশন টু অ্যাপ্লাই’ (ওহারঃধঃরড়হ ঞড় অঢ়ঢ়ষু) বা ওঞঅ পাওয়ার জন্যে।

আর প্রোফাইলটি তৈরি করলেই যে একজন আবেদনকারী ওঞঅ পাবেন, এর কোন নিশ্চয়তা নেই। কানাডা ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ একটি নির্দিষ্ট বিরতিতে এক্সপ্রেস এন্ট্রি পুল থেকে ড্র আয়োজন করে থাকে। ড্র-তে যে স্কোর নির্ধারিত হবে, সে অনুযায়ী আবেদনকারীদের যারা এক্টিভ এক্সপ্রেস এন্ট্রি প্রোফাইল নিয়ে পুলে অবস্থান করেন, তারা ‘ইনভাইটেশন টু অ্যাপ্লাই’ (ওহারঃধঃরড়হ ঞড় অঢ়ঢ়ষু) বা ওঞঅ পাবেন।

কাজেই ‘এক্সপ্রেস এন্ট্রি’ প্রোফাইল তৈরি করে ‘এক্সপ্রেস এন্ট্রি’ পুলে প্রবেশ করা এবং ইমিগ্রেশনের বাকি পথ পাড়ি দেয়াটা কঠিন মনে হলেও অসম্ভব নয়। বরং সময় নষ্ট না করে ধৈর্য সহকারে ইমিগ্রেশনের জন্যে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট তৈরি এবং সঠিক পদক্ষেপগুলো নেয়াই শ্রেয়।

ইমিগ্রেশনের ক্ষেত্রে দু’টি বিষয় মাথা রাখতে হবে, এটি একটি সময়সাপেক্ষ ব্যাপার এবং ইমিগ্রেশনের রাস্তায় অবশ্যই সময়ের কাজটি সময়েই করে ফেলতে হবে। কানাডায় যেতে ‘শর্ট-কাট’ পস্থার পরিবর্তে কেবলমাত্র ইমিগ্রেশন প্রক্রিয়ার বিষয়ে মনোযোগী হলেই সফলতা ধরা দেবে। তাই একমাত্র ইমিগ্রেশনের প্রক্রিয়ায় কানাডায় পারমানেন্ট রেসিডেন্সি (পিআর) পাওয়া সম্ভব।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

ভ্রমন সম্পর্কিত সকল নিউজ এবং সব ধরনের তথ্য সবার আগে পেতে, আমাদের সাথে থাকুন এবং আমাদেরকে ফলো করে রাখুন।

Like Us On Facebook

Facebook Pagelike Widget
© All rights reserved © 2020 cholojaai.net
Theme Customized By ThemesBazar.Com