ইতালির ভিজিট ভিসা

আত্নীয়, বন্ধু-বান্ধব বা পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা করা কিংবা ইতালি ঘুরে দেখতে যেকোন পাসপোর্টধারী ভ্রমণ ভিসার আবেদন করতে পারেন। এক্ষেত্রে সেনজেন ভিসার আবেদন করতে হবে। এধরনের ভিসা আবেদন নিষ্পত্তিতে অন্তত ১৫ দিন লাগে।

ভিসা ফি

ভিসা ফি ছাড়াও ভিএফএস-এর সার্ভিস

ইউরো টাকা
ভিসা আবেদন ৬০ ৬৩০০
ভিএফএস গ্লোবাল সার্ভিস চার্জ   ১৬০০
ব্যাংক ড্রাফট   ২৩০

ভিসা আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

  • যথাযথভাবে পূরণকৃত আবেদনপত্রে তারিখসহ আবেদনকারীর সাক্ষর থাকতে হবে।
  • শিশুদের ক্ষেত্রে আবেদনপত্রে বাবা-মা উভয়ের সাক্ষর থাকতে হবে, তা সে যার সাথেই ভ্রমণ করুক না কেন।
  • যদি বাবা কিংবা মা কোন একজনের সাথে ভ্রমণ করে তবে বাবা কিংবা মা যিনি শিশুটির সাথে ভ্রমণ করছেন না তার সাক্ষরিত একটি অনাপত্তিপত্র লাগবে। সেই সাথে তার পাসপোর্ট প্রদর্শন করতে হবে। পাসপোর্টের একটি ফটোকপিও জমা দিতে হবে আবেদনের সাথে।
  • স্বামী-স্ত্রী ভ্রমণ করলে ম্যারেজ সার্টিফিকেট দিতে হবে।
  • শিশুদের ক্ষেত্রে বার্থ সার্টিফিকেট লাগবে।
  • শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে আইডি কার্ড এবং ফটোকপি লাগবে। এছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে দেয়া ছুটির অনুমতিপত্রও লাগবে।
  • ভিসা মেয়াদের পরও পাসপোর্টের মেয়াদ অন্তত ১৮০ দিন থাকতে হবে। পাসপোর্টে অন্তত দু’টি ফাঁকা পৃষ্ঠা থাকতে হবে।
  • পাসপোর্টের প্রথম ৬ পৃষ্ঠা এবং শেষ চার পৃষ্ঠার ফটোকপি লাগবে। আগে সেনজেন ভিসা নেয়া হয়ে থাকলে তার ফটোকপিও জমা দিতে হবে।
  • সাদা পটভূমি বা ব্যাকগ্রাউন্ডে দুই কপি রঙিন পাসপোর্ট সাইজের ছবি। ভিএফএস ফটো বুথ থেকে ছবি তুলতে হবে।
  • আবেদনকারী যে প্রতিষ্ঠানে কাজ করছেন তার তরফ থেকে দূতাবাস বরাবর আবদেনকারীর একটি পরিচিতিপত্র পেশ করতে হবে। এখানে আবেদকারীর পেশাগত অবস্থান, নিয়োগের তারিখ, বেতন ছুটির অনুমতি ইত্যাদি তথ্য দিতে হবে হবে।
    • চাকুরীজীবির ক্ষেত্রে যেসব কাগজপত্র দিতে হবে:
      • নিয়োগপত্রবিগত ছয় মাসের পে-স্লীপের মূলকপি এবং ফটোকপি।
    • ব্যবসায়ী বা চাকুরিদাতের ক্ষেত্রে
      • আবেদনকারীর কোম্পানীর প্রতিষ্ঠানের নিবন্ধন সংক্রান্ত কাগজপত্র
      • মেমোর‌্যান্ডাম অব আর্টিকেলস এন্ড এসোসিয়েশন (প্রথম দুই পুষ্ঠা এবং শেয়ারহোল্ডারদের নামসহ শেষ পৃষ্ঠাগুলো)
      • ব্যবসায়ীদের স্থানীয় সংগঠনে সদস্যভুক্তির সনদ
      • ট্যাক্স নম্বর
      • ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন
      • ট্রেড লাইসেন্সের মূলকপি এবং ফটোকপি।
  • বিগত ছয় মাসের ব্যাংক একাউন্টের বিবরণী (মূলকপি এবং ফটোকপি)
  • ক্রেডিট কার্ডের বিবরণী (যদি থাকে)
  • ইতালির প্রতিষ্ঠানের তরফ থেকে পাঠানো সাক্ষরিত আমন্ত্রণপত্র ইতালি দূতাবাস বরাবর ফ্যাক্স বা ই-মেইল করতে হবে। ভিসা আবেদনপত্রের সাথেও এক কপি দিতে হবে। ঢাকাস্থ ইতালি দূতাবাসের সাইট ambdhaka.esteri.it থেকে ডাউনলোড করা আমন্ত্রণপত্রই কেবল গৃহীত হবে।
  • ইতালির হোটেলে বুকিং নিশ্চিত করে পাঠানো রিজার্ভেশন লেটার অবশ্যই আবেদনপত্রের সাথে জমা দিতে হবে।
  • অন্তত ৩০,০০০ ইউরোর মেডিকেল ইন্স্যুরেন্স।  কিছু নির্ধারিত ইন্স্যুরেরন্স কোম্পানীর ইন্স্যুরেন্সই গ্রহণ করা হয়। অনুমোদিত কোম্পনীগুলোর তালিকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: